বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০২:২২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কোলচুরি গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে বোমা নিক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর সাথে পাবিপ্রবি উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যের সৌজন্য সাক্ষাৎ সাঁথিয়ায় নকল প্রসাধনী কারখানার সন্ধান, ভ্রাম্যমান আদালতে ৬ মাসের কারাদন্ড ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের ভারে ভারাক্রান্ত বেড়ার মাশুন্দিয়া ডিগ্রি কলেজ পাবনায় ফজিলাতুননেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত চাটমোহরে ট্রেনের ধাক্কায় মহিলার মৃত্যু ভারতে বসবাস, চাকুরী করেন বাংলাদেশে! কৌশলে নেন বেতন আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে- এমপি প্রিন্স শেখ কামালের জন্ম বার্ষিকী, পাবনায় নানা আয়োজন সাঁথিয়ায় নারী উদ্যোক্তাদের উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

কোটি কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা জেকা বাজার কর্মকর্তারা, দিশেহারা হাজার হাজার গ্রাহক

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত সোমবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২১
Pabnamail24

লাখে ত্রিশ হাজার মুনাফা দেওয়া সেই জেকা বাজারের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে গ্রাহকদের জমাকৃত অর্থ নিয়ে দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার রাজবাড়ি সদর থানায় উর্দ্ধতন ৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ১৫ কোটি টাকা নিয়ে দেশ ত্যাগের চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন ওই প্রতিষ্ঠানটির বিপনন পরিচালক ইশানুর রহমান। গ্রাহকদের বিনিযোগকৃত অর্থ ফেরত চাওয়ায় অত্মগোপন করেছেন প্রতিষ্ঠানটির রাজবাড়ি ও পাবনার উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।

রাজবাড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহদত হোসেন জানান, সম্প্রতি জেকা বাজার নামের একটি প্রতিষ্ঠান ই-কমার্সের আড়ালে অবৈধভাবে এমএলএম ব্যবসা পরিচালনা করছিল। তা নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে রাজবাড়ি শহরের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সন্নিকটে নান্নু টাওয়ারে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালায় প্রশাসন। সেখানে নকল পণ্য বিক্রি ও ই কমার্স ব্যবসার বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় তাদের জরিমানা ও প্রতিষ্ঠানটি সীলগালা করে দেওয়া হয়। বৈধ কাগজপত্র প্রদর্শনের জন্য নির্ধারিত সময়সীমা বেধে দেয় প্রশাসন। এরই মধ্যে বৈধ কাগজপত্র প্রদর্শনে ব্যর্থ হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয় রাজবাড়ির স্থানীয় প্রশাসন।

ওসি আরো জানান, লাখে ৩০ হাজার টাকা মুনাফা দেওয়ার প্রলোভনে রাজবাড়ি, পাবনা, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর ও মানিকগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলার গ্রাহকদেও নিকট থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে জেকা বাজার সংশ্লিষ্টরা। প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালালে তাদের কারসাজির বিষয়টি গ্রাহকরা জানতে পারে। তখন থেকেই গ্রাহকদের টাকা নিয়ে আত্মগোপনে চলে যায় প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাবের উল্লাহ খান জাবের, মনসুরসহ তার সহযোগীরা।
তাদের খোজ না পেয়ে গ্রাহকদের চাপে ওই প্রতিষ্ঠানেরই বিপনন পরিচালক ইশানুর রহমান সোমবার দুপুরে মামলা দায়ের করেন।

এদিকে এমন খবর পাওয়ায় পাবনার খলিলপুর এলাকার জেকা বাজারের পরিচালক আনিস মাষ্টার, বাসার, রাজিব মোল্লাসহ কয়েকজন গ্রাহকদের প্রায় ১০ কোটি টাকা নিয়ে এলাকা থেকে উধাও হয়ে গেছেন। ফলে নিনিয়োগকারীরা দিশেহারা হয়ে পরেছেন। তারা পাগলের মতো তাদের বাড়িতে খোজ করের পাচ্ছেন না। এই প্রতারক চক্রের হোতাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনারও দাবী গ্রাহকদের।
জেকা বাজারে বিনিয়োগ করা একাধিক গ্রাহক বলেন, আমরা কিস্তিতে ঋণ নিয়ে জেকা বাজারে বিনিয়োগ করেছি। এক হাজার টাকার বিনিময়ে তারা আমাদের একটি করে আইডি দিয়েছে। ওই আইডি থেকে প্রতিদিন ভিডিও দেখলে ভিডিও প্রতি আমরা ১০ টাকা করে পেতাম। আমরা প্রত্যেক মাসে ভালোই টাকা পেয়েছিলাম। গত ২ নভেম্বর প্রতিষ্ঠানটি বন্ধের পর আর টাকা পাইনি। যাদের আমরা টাকা দিয়েছিলাম, তারা সবাই পালিয়ে গেছে। এখন আমরা কিস্তির টাকা কীভাবে পরিশোধ করব?

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের রাজবাড়ী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শরিফুল ইসলাম বলেন, রাজবাড়ী ও পাবনাসহ কয়েকটি জেলায় ‘জেকা বাজার লিমিটেড’ নামে অবৈধ একটি এমএলএম কোম্পানি প্রায় ২৫ হাজার গ্রাহকের কাছ থেকে ৫০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানা গেছে। অধিক মুনাফার লোভে কিছু গ্রাহক ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত এখানে বিনিয়োগ করেছেন। জেকা বাজারের মালিক পক্ষকে আইনের আওতায় না আনা হলে গ্রাহকদেও বিনিয়োগকৃত টাকা ফেরত পাওয়া অনিশ্চিত হয়ে পরবে।

রাজবাড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহদত হোসেন আরো বলেন, মামলা দায়েরের পর পুলিশ জেকা বাজারের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের গ্রেফতারে কাজ করছেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!