বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চরসাদিপুরে জমিজমা সংক্রান্ত জের ধরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৮ বিশিষ্ট আবাসিক হোটেল ব্যবসায়ীর ইন্তেকাল, বিভিন্ন মহলের শোক মাসুম বাজারে যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরীর কারখানার সন্ধান পিআইবির উদ্যোগে ও পাবনা প্রেসক্লাব’র আয়োজনে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা চাটমোহরে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু ভাঙ্গুড়ায় গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক পাবনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্যোগে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ চাটমোহরে গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার সাঁথিয়ায় পুলিশের এসআই পরিচয়ে ছিনতাইকালে আটক-১ করোনা পরীক্ষায় পাবনা মেডিকেল কলেজে পিসিআর ল্যাবের কার্যক্রম শুরু

সাগরকান্দি ইউপি আ. লীগ সহ-সভাপতিকে বকুল বাহিনীর লোকজন তুলে নিয়ে মারপিট

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার সুজানগরের সুলতান গেট এলাকার বিশিষ্ট সমাজ সেবক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আব্দুর রশিদ মোল্লাকে অনন্ত হল এলাকা থেকে একদল ূর্বৃত্তরা তুলে নিয়ে ব্যাপক মারপিট করেছে বকুল বাহিনীর সন্ত্রাসীরা। আজ ুপুরে পাবনা শহরে এই ঘটনা ঘটে। পরে সন্ত্রাসীরা রশিদ মােল্লাকে অচেতন অবস্থায় শহরের বাইপাস এলাকার সততা ক্লিনিকের সামনে ফেলে রেখে যায়। এ ঘটনা তাৎক্ষনিক ভাবে জেলা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে তার পরিবারের পক্ষ থেকে।

রশিদ মোল্লার সঙ্গী সুলতান গেট এলাকার রুহুল আমিন জানান, রশিদ মোল্লা অসুস্থ হওয়ায় চিকিৎসককে দেখাবেন বলে আমাকে সাথে নিয়ে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে আমরা পাবনার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হই। পথিমধ্যে আমাদের বকুল বাহিনীর লোকজন অনুসরণ করে। যা আমরা বুঝতে পারি নাই। পরে পাবনা শহরের অনন্ত হল এলাকায় পৌছেলে একদল সন্ত্রাসী আমাদের সিএনজি গতিরোধ করে কিছু বুঝে উঠার আগেই রশিদ মোল্লাকে নামিয়ে নিয়ে যায়। তার সাথে আমি ছিলাম বিষয়টি তারা বুঝতে পারেন নাই। ফলে আমি সিএনজিতে থেকে তাৎক্ষনিক আমি নেমে তার আত্মীয় স্বজনদের বিষয়টি অবহিত করি। রশিদ মোল্লার পরিবারের পক্ষ থেকে পাবনার পুলিশ সুপার ও সুজানগর থানা পুলিশকেও বিষয়টি অবহিত করা হয়। পরে বকুল বাহিনীর সন্ত্রাসীরা পুলিশী তৎপরতা বুঝতে পেরে রুশদ মোল্লাকে রড ও জিআই পাইপ দিয়ে বেধরক মারপিট করে মূমুর্ষ অবস্থায় শহরের বাইপাস এলাকায় নামিয়ে দেয়।

জেলা ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রব বাপ্পি জানান, আমি শালগাড়িয়া বাইপাস এলাকার বাসিন্দা হওয়ায় ওই এলাকায় ছিলাম পরে দেখি একদল সন্ত্রাসী একজন মুরুব্বীকে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে মাইক্রোবাস যোগে চলে যায়। তাৎক্ষনিক আমি তাকে উদ্ধার করে পাশের সততা ক্লিনিকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করি। এখন ওই মুরুব্বীর অবস্থা অনেকটা ভালো বলেও জানান বাপ্পি।

বাপ্পি আরো জানান, ওই মুরুব্বীর সংগা ফিরলে যেটা বলেছেন, তা হলো সম্প্রতি তার এলাকায় একটি ঝামেলা হয়। যে ঝামেলার কারনে স্থানীয় গোলাম রসুল বকুল বাহিনী ক্ষুব্ধ হয়। তারাই তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় পুলিশী তৎপরতা বুঝতে পেরে তারা আমাকে লোহার রড, জিআই পাইপ দিয়ে ব্যাপক মারপিট করে শহরের একটি স্থানে ফেলে রেখে যায়। তারমধ্যে কয়েকজনকে তিনি চিনতে পেরেছেন তারা হলো গোলাম রসুল বকুল, এসএম শোহাগ, সাগরকান্দির রাজু, মানিক, লোকমান, মৃদুল, নয়ন, সুজন, হালিম ছাড়াও সুজানগরের আরো অনেকেই তাকে মারপিটের সময় ছিল বলে ওই মুরুব্বী জানিয়েছেন।

Pabnamail24

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা এ ধরনের একটি বর পেয়ে তাৎক্ষনিক শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশী তল্লাসী ও ওই আওয়ামীলীগ নেতাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাই। পরে শুনতে পাই তাকে শহরের বাইপাসে সন্ত্রাসীরা তাকে ফেলে রেখে গিয়েছেন। বিসয়টি খোজ নেয়া হচ্ছে কারা এ ঘটনার সাে জড়িত। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

এলাকাবাসী জানান, সাগরকান্দি ইউনিয়নের কুখ্যাত সন্ত্রাসী গোলাম রসুল বকুল। তিনি এলাকায় ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে তার রাজত্ব চালিয়ে আসছে। তাকে সমর্থন দেন সুজানগর উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী জনৈক নেতা। তার সাহসেই তিনি এ ধরনের কর্মকান্ড পরিচালনা করেন বলেও তারা অভিযোগ করেন। বিষয়টি নিয়ে ওই এলাকায় বর্তমানে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। এই গোলাম রসুল বকুলের বিরুদ্ধে অবৈধ ভাবে জলাশয় ও জমি দখলসহ বিভিন্ন অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!