মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:২৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাবনা-৪ উপ-নির্বাচনে গণসংযোগে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ চাটমোহরে দুইদিন ব্যাপী ভেলা বাইচ প্রতিযোগিতা পাবনায় এইচআইভি-এইডস প্রতিরোধে লাইট হাউসের মতবিনিময় সভা সাঁথিয়ায় শালিসে ডেকে মারপিট করার অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বেড়ায় দুই গোষ্ঠির মারামারি, আহত ৪ ঈশ্বরদীতে উপনির্বাচনের সভায় বিএনপির দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ১৫ ‘উপনির্বাচনে কারচুপি হলে ঈশ্বরদী থেকেই সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে’- আমান উল্লাহ পাবনা-৪ উপ-নির্বাচনের প্রচারণায় উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি, করোনা সংক্রমণের আশংকা পাবনা-৪ উপনির্বাচন-আসন ধরে রাখতে মরিয়া আ’লীগ, পুনরুদ্ধারের চেষ্টায় বিএনপি ভাঙ্গুড়ায় বৃক্ষ বিতরণ ও রোপণ করল ‘মানবিক ভাঙ্গুড়া’

রাণীনগরে আওয়ামীলীগের দু’গ্রæপের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা দায়ের, গ্রেফতার ৫

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

পাবনার সুজানগরে জলাশয়ে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় আমিনপুর থানায় দুটি মামলা হয়েছে। রবিবার রাতে অস্ত্র আইনে ও পৃথক পৃথক ধারায় এসব মামলা দায়ের করা হয়।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক জানান, রবিবার দুপুরের হামলা ও গোলাগুলির ঘটনায় রাণীনগর ইউনিয়নের ভাটিকয়া গ্রামের খাইরুল মাস্টার বাদী হয়ে ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহীনসহ ২০ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন। পাশাপাশি পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে আরো একটি মামলা দায়ের করে।

আসামীদের মধ্যে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন, যুবলীগ কর্মী সাইদুল, শরীফুল, আরিফ ও দোলোয়ার। তবে, শাহীনসহ অপর আসামীরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলেও জানান ওসি।
সংঘর্ষের পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পুলিশী টহল বাড়ানো হয়েছে।

মামলার বাদী খাইরুল মাস্টার জানান, গুলিবিদ্ধ ১৫ জনের মধ্যে ১০ জনের অবস্থার উন্নতি হওয়ায় তাদের ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। গুরুত্বর আহত পাঁচজন এখনো পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এদের মধ্যে সেলিম সর্দার নামে একজনের অবস্থার অধিক অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, হামলা ও গুলিবর্ষণের প্রতিবাদে সুজানগরে সোমবার বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে দোষীদের শাস্তির দাবী করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীনুজ্জামান শাহীনের সমর্থক নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা হামলার নির্দেশদাতা হিসেবে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল ওহাবকে দায়ী করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক রবিউল হক টুটুল, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ফেরদৌস আলম ফিরোজ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সরদার রাজু আহমেদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম তমাল, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সোহাগ হোসেন।
তবে, এ ঘটনাকে স্থানীয় অরাজনৈতিক সংঘর্ষ দাবী করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল ওহাব। তিনি বলেন, সাধারণ সম্পাদক শাহীনুজ্জামানের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বিভিন্ন অপকর্মে বাধা দেয়ায়, তিনি তার সমর্থকদের দিয়ে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করছেন।

প্রসঙ্গত, জলাশয়ে মাছ চাষ করা নিয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীনুজ্জামান শাহীনের সমর্থক খাইরুল মাস্টারের সাথে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল ওহাবের সমর্থক ও রাণীনগর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহীনের দ্ব›দ্ব চলছিল। এরই জেরে রবিবার শাহীনের নেতৃত্বে তার সমর্থকরা প্রতিপক্ষের উপর গুলিবর্ষণ করলে কমপক্ষে ১৫ জন গুলিবিদ্ধসহ ২৫ জন আহত হয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!