সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাবিপ্রবি’র অর্থনীতি বিভাগের যুগপূতি পাবনায় দুইদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু পাবনায় পুলিশের বন্ধু বঙ্গবন্ধু গ্যালারীর উদ্বোধন শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদে পাবনায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এবার জাল দলিলসহ ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করে ৫২ বিঘা জমি দখলের অপচেষ্টা! পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমানের জন্মদিন পালন পাবিপ্রবির কর্মচারী পরিষদের ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ রূপপুর এনপিপিঃ দ্বিতীয় ইউনিটের অভ্যন্তরীণ কন্টেইনমেন্টে ডোম স্থাপন সম্পন্ন ভালো কাজের আনন্দ খুবই তৃপ্তির-পাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন ভাঙ্গুড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

অবৈধ অস্ত্র ও মাদকসহ আতাইকুলা’র শীর্ষ সন্ত্রাসী শাহিন গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার আতাইকুলা থানার ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের গনেশপুর গ্রামের সন্ত্রাসী ও মাদকের গডফাদার শাহিন আলমকে গ্রেফতার করেছে সিপিসি-২ পাবনা, র‍্যাবের একটি আভিযানিক দল। বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) ভোর ৫টার দিকে র‌্যাবের একটি দল এক বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। তার গ্রেফতারে এলাকায় স্বস্তি নেমে এলেও শাহিনের অপর সহযোগী বকুল গ্রেফতার না হওয়ায় জনমনে ভীতি বিরাজ করছেন।

র‌্যাব পাবনা ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানাী কমান্ডার কিশোর রায় জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) ভোর ৫টার দিকে র‌্যাবের একটি বিশেষ দল পাবনা জেলার আতাইকুলা থানার গণেশপুর এলাকার মৃত রইচ উদ্দিনের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় গ্রেফতারকৃত শাহিন আলম’র নিকট থেকে ১টি বিদেশী রিভলবার, ৫ রাউন্ড গুলি অবৈধ নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য ১৬৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, গাজা ও ২টি বিদেশী মদ উদ্ধার করা হয়।

তাকে জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায়, সে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট, গাজাসহ বিভিন্ন ব্রান্ডের মাদকদ্রব্য নিজের হেফাজতে রেখে নিজ এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিল। সেই সাথে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজী এবং অবৈধভাবে অর্জিত অর্থ দেশ-বিদেশে পাচার করে আসছিল। আসামীর বিরুদ্ধে পাবনা জেলার আতাইকুলা থানায় এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

র‌্যাব-১২’র পাবনা ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার কিশোর রায় আরও জানান, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনে র‌্যাবের অভিযান অব্যহত থাকবে।

উল্লেখ্য, পাবনা জেলার অন্যতম মাদকের গডফাদার ও শীর্ষ সন্ত্রাসী মাদকের টাকায় এবং অবৈধ অস্ত্র ব্যবহারের মাধ্যমে চাঁদাবাজি করে মাত্র কয়েক বছরে হয়ে উঠেছে কোটিপতি, তিনি ওই এলাকার এক আতংকের নাম। মাদক ব্যবসা এবং চাঁদাবাজি মাধ্যমে অবৈধ অর্থবিত্তের মালিক পাশাপাশি হয়েছেন মাদকের গডফাদার। শাহীন মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকায় নানা সময় গ্রেপ্তার হয়েছিল। পরে জামিন পেয়ে ফিরে এসেই প্রতিবারই কোনো না কোনো অপকর্ম করে।

দীর্ঘদিন সে পলাতক অবস্থায় ছিল। মাঝে মধ্যে ঢাকায় অবস্থান করলেও মাদকের চালান নিয়ে এলাকায় আসতেন বিশেষ কৌশলে। থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে তিনি এলাকায় ঢুকে কাজ শেষে আবার এলাকা ত্যাগ করতেন বলেও স্থানয়রা জানিয়েছেন।
সম্প্রতি তিনি আতাইকুলা থানা এলাকার মাধপুর বাজারে অবস্থান করলেও অজ্ঞাত কারনে থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন নাই বলেও স্থানীয়রা অভিযোগ করেন। তাদের ধারনা পুলিশের সাথে গোপন আতাত থাকার কারনেই তাকে পুলিশ গ্রেফতার করতেন না।

ইতিপূর্বে এক যুবক তার বিরুদ্ধে কথা বলায় তাকে মারপিট করলে সে পঙ্গু হাসপাতালে দীর্ঘদিন শয্যাশায়ী ছিলেন। এদের অত্যাচারে পুরো এলাকা অতিষ্ঠ বলেও জানান তারা।

এলাকাবাসীর কাছে সে মূর্তমান ত্রাস হওয়ায় কেউ সাহস করে প্রতিবাদ করেনি। মাদক নির্মূলে ‘চলো যাই যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে’ স্লোগান নিয়ে ২০১৮ সালের ৪মে মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণার পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের তত্ত্বাবধানে মাদক নিয়ন্ত্রণে যুক্ত সংস্থা ও বাহিনীগুলো এ অভিযান শুরু করে। এই শাহিনের নামে দুদকে, থানায় এবং আদালতে একাধিক মাদকের মামলা আছে। এছারাও তার নামে থানাতে হত্যা, ধর্ষণ মামলাসহ একাধিক মাদক ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে মামলা রয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!