রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৫:০৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বড়াল নদীর মাটি যাচ্ছে ইট ভাটায়, কোটি টাকার বাণিজ্য পাবনায় ২ হাজার কৃষকের মাঝে এমপি প্রিন্স’র বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ ঈশ্বরদীতে যুবকের মৃত্যু, করোনায় আক্রান্ত ছিল বলে দাবী এলাকাবাসীর পাবনার ধনাঢ্য ব্যবসায়ীকে ফিল্মি স্টাইলে জোরপূর্বক পাগল সাজিয়ে হাসপাতালে দেয় ছেলে পাবনা পৌর এলাকার মাঠপাড়ায় এমপি প্রিন্স’র ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অপহরণের পর লাখ টাকা চাঁদা দাবি, বিকাশের এজেন্ট সেজে উদ্ধার করল পুলিশ সাঁথিয়ায় যুবলীগ নেতার বাড়ি থেকে লুট হওয়া গরু উদ্ধার আটঘরিয়ায় অনৈতিক কাজে বাধ্য করার অভিযোগ, মা-বাবাসহ গ্রেপ্তার ৩ সাঁথিয়ায় আ’লীগ নেতার স্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘর দেয়ায় অর্থ নেয়ার সত্যতা মিলেছে আটঘরিয়ায় লকডাউনের প্রথম দিনে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

সাঁথিয়ায় নিহতের ঘটনায় মামলা, গ্রাম ছাড়া পুরুষ মহিলা ও লুটপাটের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত শনিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার সাঁথিয়ায় দলীয় কোন্দলের জের ধরে আলহাজ (৩০) নামে এক যুবক খুনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতার ও ইজ্জতের ভয়ে মালামাল নিয়ে নারী ও পুরুষ গ্রামছাড়া। ব্যাপক লুটপাটের অভিযোগ।

জানাযায়, উপজেলার গৌরিগ্রাম ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন নিয়ে শ্রবেশ মোল্লা ও মোসলেম মাস্টার গ্রুপের বিরোধের জের ধরে গত বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) খুন হয় আলহাজ (৩০) নামের এক যুবক। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে আলহাজের বাবা মানিক বাদী হয়ে মোসলেম মাস্টারকে প্রধান করে ৩২ জনকে আসামী করে সাঁথিয়া থানায় মামলা করেন। যার নং ০১। তারিখ ০১-০৪-২০২১ইং।

এদিকে খুনের ঘটনার পরেই প্রতিপক্ষের অর্ধশত পরিবারের প্রায় দেড়শত পুরুষ সদস্য বাড়ী ছাড়া রয়েছে। ঘর-বাড়ি ছাড়া কিছু পরিবারের গরু ,মহিষ ও দামী আসবাবপত্র পুলিশের সহায়তায় আত্বীয়দের বাড়িতে সরিয়ে নেয়া হয়। তবে পুলিশের কড়া নিরাপত্তার পরও ঘুঘুদহ গ্রামের সলেমান, পিন্টু, কদ্দুস ও আতিকের বাড়িতে লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী পরিবার। পিন্টুর বাড়ি থেকে লুট হওয়া দুটি গরু উপজেলার বিষ্ণুপুর থেকে ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে ফেরত নেন বলে জানান পিন্টুর আত্বীয় মানিক মোল্লা। পিন্টুর বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। বাড়ির আসবাবপত্র, বিছানাসহ সমস্ত জিনিসপত্র এলোমেলো রয়েছে। কদ্দুসের স্ত্রী ফুলমতি ও আতিকের স্ত্রী কোলি জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আমাদের মহিষ, গরু, ফ্রিজ, মোটর ,পেঁয়াজ, স্বর্ণালংকারসহ আসবাবপত্র লুট করে নেয়। এখন আমরা ইজ্জতের ভয়ে অন্যত্র পালানোর চেষ্টা করছি। রাত হলে প্রতিপক্ষ আমাদের উপর আক্রমন করতে পারে।

ঘুঘুদহ গ্রামের সোলেমানের স্ত্রী বুলবুলি খাতুন জানান, ঘটনার দিন আমার স্বামী সাঁথিয়ার হাটে গেছিল। সে এর কিছুই জানে না। বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিপক্ষের লোকজন লাঠি ফালা নিয়ে হামলা চালিয়ে গরু, মহিষ নিয়ে যায়্। তারা আমার বসত ঘরের তালা ভেঙ্গে ফ্রিজ, টিভি স্বর্ণালংকারসহ নগদ অর্থ নিয়ে যায়। তিনি কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার একটা ছেলেও নেই যে রক্ষা করবে। তিনি বলেন, আমার চাং থেকে পিয়াজ নিয়ে গেছে আজ রাতেও আসবে বলে গেছে অন্য একটি চাং থেকে পিয়াজ নিয়ে যাবে। ঘরের দরজার তালা ভেঙ্গে সব কিছু নিয়ে গেছে। আমি ইজ্জত ও প্রাণের ভয়ে বাবার বাড়িতে অবস্থান করছি।

রঘুরামপুর গ্রামের আবেদা খাতুন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে আমার মেয়ের জামাই মিরাজ বাড়িতে না থাকায় ওরা আমার মেয়ের গরু নিয়ে চলে গেছে বাবা বলে সে চিৎকার শুরু করে। এদিকে লুটের ভয়ে মালামাল নিয়ে শুক্রবার সকাল থেকে আত্বীয় বাড়িতে ছুটতে থাকে নারী সদস্যরা। রাহাদুলের স্ত্রী রাশিদা খাতুন ও সাইদুলের স্ত্রী লাকী খাতুনকে দেখা যায় বাড়ির আসবাবপত্র ভ্যানে করে সরিয়ে নিচ্ছে। তারা এ প্রতিনিধিকে জানান রাতে লুটপাট হবে বলে আমরা জিনিসপত্র সরিয়ে নিচ্ছি।

নিহত আলহাজ্বের নানা ৯ নং ওয়ার্ড আ”লীগের সভাপতি শরবেশ মোল্লা লুটপাটের বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, তারা নিজেদের জিনিসপত্র নিজেরাই অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে প্রতিপক্ষকে দোষারোপ করছে।

অপর দিকে বৃহস্পতিবার রাতে আটক করা ১০ আসামীকে শুক্রবার পাবনা জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। শুক্রবার বাদআসর নিহত আলহাজের জানাযা নামাজ শেষে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়।

সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, ঘুঘুদহ গ্রামটি অনেক বড় এবং বিল বেষ্টিত। আমরা ২৫টি গরু উদ্ধার করে আত্বীয় স্বজনদের হাতে তুলে দিয়েছি। পুলিশের কঠোর অবস্থানের পরও যদি কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে তার অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *