রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বড়াল নদীর মাটি যাচ্ছে ইট ভাটায়, কোটি টাকার বাণিজ্য পাবনায় ২ হাজার কৃষকের মাঝে এমপি প্রিন্স’র বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ ঈশ্বরদীতে যুবকের মৃত্যু, করোনায় আক্রান্ত ছিল বলে দাবী এলাকাবাসীর পাবনার ধনাঢ্য ব্যবসায়ীকে ফিল্মি স্টাইলে জোরপূর্বক পাগল সাজিয়ে হাসপাতালে দেয় ছেলে পাবনা পৌর এলাকার মাঠপাড়ায় এমপি প্রিন্স’র ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অপহরণের পর লাখ টাকা চাঁদা দাবি, বিকাশের এজেন্ট সেজে উদ্ধার করল পুলিশ সাঁথিয়ায় যুবলীগ নেতার বাড়ি থেকে লুট হওয়া গরু উদ্ধার আটঘরিয়ায় অনৈতিক কাজে বাধ্য করার অভিযোগ, মা-বাবাসহ গ্রেপ্তার ৩ সাঁথিয়ায় আ’লীগ নেতার স্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘর দেয়ায় অর্থ নেয়ার সত্যতা মিলেছে আটঘরিয়ায় লকডাউনের প্রথম দিনে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

সাঁথিয়ায় আ’লীগের কমিটি গঠন নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন নিয়ে বিরোধের জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত দশজন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ৫ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (০১ এপ্রিল) বেলা ১২ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম আলহাজ শেখ (৩৫)। তিনি উপজেলার ঘুঘুদহ পূর্বপাড়া গ্রামের মানিক শেখের ছেলে এবং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি শরবেশ শেখের নাতী।

স্থানীয়রা জানান, গৌরিগ্রাম ইউনিয়নের ৯ নাম্বার ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে স্থানীয় শরবেশ শেখ ও মোসলেম মাস্টার গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গত সোমবার (২৯ মার্চ) ৯ নাম্বার ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সম্মেলনে শরবেশ শেখ সভাপতি নির্বাচিত হন। এতে ক্ষুব্ধ হন মোসলেম মাস্টার ও তার সমর্থকরা।

বৃহস্পতিবার সকালে নবনির্বাচিত সভাপতি শরবেশ শেখ গ্রুপের লোকজন ঘুঘুদহ পূর্বপাড়া মাঠে কাজ করতে গেলে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হয় মোসলেম মাস্টার গ্রুপের লোকজনের। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজন লাঠিশোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে আলহাজ শেখ ফালাবিদ্ধ সহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আলহাজ কে মৃত ঘোষণা করেন। আহতদের সাঁথিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় মতিউর রহমান ও আব্দুল খালেককে পাবনা জেনারেল হাসপাতলে প্রেরণ করা হয়েছে।

বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান ও সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে সংঘর্ষে ব্যবহৃত লাঠি,ফালা, তীর-ধনুকসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান জানান,নিজেদের অভ্যন্তরীন নেতৃত্বের কোন্দলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সাঁথিয়া থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৩জনকে আটক করা হয়েছে। পুণরায় সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতয়েন করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *