বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:০১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র হতে দলীয় সভায় ১৪ জনের নাম জমা পাবনা সুগার মিল বন্ধের প্রতিবাদে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ ২৯তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস ও ২২তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত সাঁথিয়ায় ৩ বারের মেয়রকে বাদ দিয়ে প্রার্থীর তালিকা বিনামূল্যে পেঁয়াজ ও রসুন বীজ বিতরণ পাবনার বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর ফখরুল ইসলাম আর নেই চাটমোহর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগ-বিএনপিসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা ব্রিজ ভাঙ্গা নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের নবনির্বাচিত কমিটির নেতৃবৃন্দকে সংবর্ধনা বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতি অব্যাহত

সরকারি জায়গা দখল করে হাফিজিয়া মাদ্রাসার ভবণ নির্মাণ সাঁথিয়ায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

সাঁথিয়া পৌর মেয়র কর্তৃক জোরপূর্বক মাদ্রাসার নিয়ন্ত্রণ ও সাঁথিয়া জামাতিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হওয়ার পরেই সরকারি জায়গা দখল করে মাদ্রাসা ভবন নির্মাণ শুরু করায় এলাকার সচেতন মহল ফুঁসে উঠেছে মোট 27 শতাংশ সরকারি খাস জমি খতিয়ান ১২৬/১২০দাগ এস এ ১০১ আর এস ৯৯ মোটজমি ১০ শতাংশ ভিপি সি ৫ ৮৬/৮৭ জমির খতিয়ানের আরো মালিক স্থানীয় সাইফুল ইসলাম আব্দুল জব্বার নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি-জামায়াতপন্থী কিছু নেতাকে ম্যানেজ করে অত্র হাফিজিয়া মাদ্রাসার সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে তাদেরকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে বলে জানান স্থাণীয় সাবেক ম্যানেজিং কমিটির এক সদস্য এবিষয়ে সাঁথিয়া উপজেলা ভূমি সহকারী কমিশনার ফয়সাল এর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান সরকারি জায়গার উপর কোন রকম হস্তক্ষেপ করার অধিকার কারো নেই। বিষয়টা আমাদের নজরে আসার পর কাজ বন্ধ করার জন্য বলা হয়েছে।

এদিকে ঐতিহ্যবাহী সাথিয়া জামাতিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা চলমান কমিটি থাকা অবস্থায়, জোরপূর্বক মাদ্রাসা ম্যানেজিং কমিটি গঠন, নিজেকে সভাপতি ঘোষণা ও মাদ্রাসার সমস্ত কার্যক্রম নিজের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সাথিয়া পৌর মেয়র মিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে। জানা যায় সাথিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার রেজুলেশন অনুযায়ী ২৮/০২/২০২০ সালে স্থানীয় সমাজসেবক সিরাজুল ইসলামকে সভাপতি ও দিপু কে সাধারণ সম্পাদক করে ৪৪ সদস্যের পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয় সেখানে মেয়র মিরাজুল কর্তৃক ১৪/০৮/২০ সালে নিজেকে সভাপতি ঘোষণা করে সদস্যের একটি কমিটি ঘোষণা দিয়ে মাদ্রাসা কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ নেয় ,বলে জানা যায় ।

এ বিষয়ে সভাপতি সিরাজুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমরা অত্যন্ত সুন্দর ও সুশৃঙ্খল ভাবে মাদ্রাসা পরিচালনা করে আসছি হঠাৎ করে গায়ের জোরে আরো একটি কমিটি ঘোষণা করে ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রভাব সৃষ্টি করে চলছে পৌর মেয়র ও তার অনুসারীরা। কমিটিতে থাকা একজন জৈনক সদস্য জানান অত্যন্ত সুকৌশলে প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করতে চলমান কমিটি থাকা অবস্থায় আরো একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে ,যা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক দীর্ঘ দিন অত্যন্ত সুনামেরসহিত পরিচালিত হয়ে আসা সাঁথিয়া মাদরাসাটি কমিটির রেজুলেশন অনুযায়ী কোন রকম অনাস্থা না থাকা সত্ত্বেও জোর পূর্বক মেয়রের হস্তক্ষেপকে কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না এলাকার সচেতন মহল।

সাঁথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এক নেতা ও স্থানীয় সূত্রে আরো জানা যায়। তিনি পৌর মেয়রের দীর্ঘদিন দায়িত্বে আছেন যার কারণে কোটি কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ তার বিরুদ্ধে রয়েছে ২০১১ সাল থেকে যে সমস্ত উন্নয়ন কাজ হয়েছে তার বিল ঠিকাদারদের পাননি ২০১১-১২ থেকে ২০১৬ ১৭ অর্থবছর পর্যন্ত সাঁথিয়া পৌরসভা উন্নয়ন প্রকল্প সমূহের প্রায় ১২ কোটি টাকা বরাদ্দ আসে ,ঠিকাদারদের বিল পরিশোধ না করে ১৯ টি পৌরসভার উন্নয়ন প্রকল্পের অ্যাকাউন্ট নম্বর (১৫৫৪) ৪কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন ।

২০১৬ সাল পর্যন্ত উন্নয়ন প্রকল্পের ১২ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয় বা ছাড় দেয় উক্ত টাকা পরিশোধ না করে মেয়র মিরাজুল ও সচিব সিদ্দিক রহমান ও প্রধান সহকারী আলমগীর হোসেন চার কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। বিষয় টি অডিটে ধরা ও পরে এ বিষয়টিও দুদকের তদন্তে চলমান শুধু তাই নয় সাথিয়া পৌরসভার বার্ষিক উন্নয়ন তহবিল এডিপির আওতায় ২০০৭ ২০১০ অর্থবছর থেকে একমাত্র ঠিকাদার তার জামাতা মেসার্স মামা ভাগ্নে ট্রেডার্স প্রোপাইটর রতন আলী এর নামে গোপনে দরপত্র কোটেশন করে ২০১৬ সাল পর্যন্ত প্রায় ৭ কোটি টাকা উত্তোলন করেছে এবং পৌর ভবন নির্মাণের জন্য সাবেক পৌর চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক মাস্টারের রেখে যাওয়া ফিক্স ডিপোজিট ৫৫ লক্ষ টাকার কোনো হদিস নেই ,এনিয়ে পৌর এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভ থাকলেও অসীম ক্ষমতার অধিকারী মেয়র মিরাজুল এর বিরুদ্ধে টু শব্দটি করার সাহস কেউ দেখায় না। এবিষয়ে মেয়রের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার কোন সারা পাওয়া যাই নি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!