বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:৫৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

পূর্ব বিরোধে দফায় দফায় সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ১৫,আটক-২

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রবিবার(১৫ অক্টোবর) দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত-১৫।আটক-২। প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, লুটপাট চালানো অভিযোগ। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

জানাযায়, উপজেলার করমজা ইউনিয়নের আফড়া গ্রামের নেকবার ও কাজীলাল পক্ষের মধ্যে দীর্ঘ দিনের বিরোধ চলে আসছিল। পূর্ব বিরোধের জের ধরে শুক্রবার সকালে নেকবার পক্ষের এমদাদুল জমি চাষ করতে মাঠে গেলে কাজীলাল পক্ষ তাকে ধাওয়া দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে শনিবার পর্যন্ত দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। রবিবার কাজীলাল পক্ষ সংগঠিত হয়ে নেকবার পক্ষের লোকজনের বাড়িতে হামলা চালায়।

এ সময় হামলাকারীরা কমপক্ষে ৫টি বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট করে। এক পর্যায় উভয় পক্ষের মধ্যে গুলাগুলির ঘটনা ঘটে। একজন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। এতে আওয়ালের ছেলে আরিফ গুলিবিদ্ধসহ নেকবার পক্ষের আহতরা হলো বেল্লাল, জলিল, রহমান, উসমান, সুরাই, ইমদাদুল, নেক্বার, আলিমুদ্দিন, নজরুল, আলতাব, মাইদুল, জাহাঙ্গীর, সোহেল, আবুল, একরাম, রেহেনা। কাজী লাল পক্ষের আহতরা হল কাজীলাল, আরিফ, জমিন, তোফাজ্জল। অ

াহতদের একজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও অন্যদেরকে পাবনা, সাঁথিয়া এবং বেড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নেকবার পক্ষের বেল্লালের স্ত্রী সাথী খাতুন জানান, প্রতিপক্ষরা হামলা চালিয়ে নগদ ২ লক্ষ টাকা, স্বণালংকার ও আসবাবপত্র লুটপাট করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সাঁথিয়া থানা পুলিশ কাজীলাল পক্ষের কালু মেম্বার ও নেকবারের পরেক্ষর বেলালকে আটক করেছে।
সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থলে দু’দফা পুলিশ পাঠিয়েছি। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!