শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৩২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আটঘরিয়ায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলা, যুবলীগ নেতাসহ আটক ৪ ঘরের মধ্যে র‌্যালী, পাবনায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধি দিবস উদযাপনের নামে তামাশা! পাবনায় আর্ন্তজাতিক প্রতিবন্ধি দিবস পালিত ঈশ্বরদীতে গাড়ির ধাক্কায় এক কাজাকিস্তান নাগরিক নিহত ঢালারচরে বিতর্কিত ও চাল চুরির অপরাধসহ নানা অপকর্মে নৌকার মাঝি পরিবর্তন সুজানগরে ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে জখম মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যূত হওয়ার ৬ ঘন্টা পর লাইন সচল, ধীরগতিতে উদ্ধারে ক্ষোভ যাত্রীদের চাটমোহর খাদ্য গুদামে ধান-চাল সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন ভাঙ্গুড়ায় মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যূত, ঢাকার সাথে উত্তর দক্ষিনের ট্রেন চলাচল বন্ধ পুন্ডুরিয়া উদয়ন সংঘের ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

ভাঙ্গুড়ায় পিতা পুত্রকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করলো যুবদল নেতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় খাস জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হাসুয়া দিয়ে পিতা পুত্রের উপর হামলা চালায় অষ্টমনিষা ৩ নং ওয়ার্ড যুবদলের সাবেক সভাপতি মোজাম্মেল ও তার সঙ্গীরা।। এই হামলায় গোলাম হোসেনের (৪৩) বাম হাত কব্জি থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে ও তার পুত্র নবম শ্রেনীর শিক্ষার্থী রাজিব হোসেন (১৫) ঘাড়ে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়। বুধবার সকাল সাড়ে আটটায় এ হামলায় আরও অংশ নেয় ইসমাইল হোসেনের ছেলে মধু (৫০), মুন্নাফ (৩৩) ও মোজাম্মেলের ছেলে ফয়সাল (১৮)। উল্লেখিত সকলেই উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের গদাই রুপসী গ্রামের বাসিন্দা ও প্রতিবেশী।

জানা যায়, আহত ও অভিযুক্ত সকলের বসতির পিছনে তেত্রিশ শতাংশ আয়তনের একটি খাস জলাশয় রয়েছে। যা দীর্ঘদিন আহত গোলাম ভোগ দখল করে আসছিলো। সম্প্রতি জলাশয়টি অভিযুক্তরা গোলাম হোসেনের কাছ থেকে লিজ নিজ নিয়ে জলাশয়ে মাছের আবাদ করছিলো ।

আহতের চাচা সাাবেক ইউপি সদস্য মোতালেব হোসেন বলেন, অভিযুক্তরা লিজ চলাকালিন সময়ে কৌশলে জলাশয়ের জাল কাগজ পত্র তৈরি করে জলাশয় তাদের বলে দাবী করলে ঝামেলার সূত্রপাত হয়। এ অবস্থায় গতকাল জলাশয়ের পানি সেচের জন্য আহত গোলম তিনটি শ্যালো মেশিন বসায়। বুধবার সকালে অভিযুক্তরা হাতুরী, চাপাতি ও হাসুয়া নিয়ে এসে শ্যালো মেশিন ভাঙচুর শুরু করে। ভাঙচুর দেখে গোলাম হোসেনের ছেলে রাজিব এগিয়ে আসলে তার গলায় চাপাতি দিয়ে কোপ দেয় তারা। তার চিৎকারে পিতা গোলাম হোসেন এগিলে এলে হাসুয়ার কোপে তার বাম হাতের কব্জি থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন করে ফেলে তাকে এলোপাথারী কোপাতে থাকে। তাদের চিৎকারে অন্যান্যরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাদের উদ্ধার করে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সওগাত এহসান তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।

তিনি বলেন, গোলাম হোসেনের কব্জি ধারালো কিছুর আঘাতে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়েছে রাজিবের গলায়ও ধারালো কিছুর আঘাতে গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে সেখানেও প্রচুর রক্তপাত হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এই চিকিৎসা সম্ভব নয় তাই প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দ্রুত তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে ভাঙ্গুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফযসাল বিন আহসান বলেন, ঘটনা ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ অবগত রয়েছে। ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!