শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:১০ অপরাহ্ন

ভাঙ্গুড়ায় টাকা দিয়েও মেলেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০২০
Pabnamail24

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার খান-মরিচ ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের সংরক্ষিত আসনের ইউপি সদস্য (মেম্বার) আলেয়া খাতুনের বিরুদ্ধে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়ার কথা বলে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ভুক্তভোগী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এর কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গোবিন্দপুর গ্রামের সংরক্ষিত ইউপি সদস্য আলেয়া খাতুন বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়ার কথা বলে একই গ্রামের বাসিন্দা হতদরিদ্র মোঃ ছায়দার হোসেনের কাছ থেকে তিন হাজার টাকা দাবী করেন। নিরুপায় হয়ে ছায়দার প্রতিবেশীর নিকট থেকে ধারদেনার মাধ্যমে ১৭০০ টাকা নিয়ে ইউপি সদস্য আলেয়াকে দেন।

ভুক্তভোগী ছায়দার হোসেন বলেন, মেম্বার আলেয়া বলেছে, বয়স্ক ভাতা কার্ড পাইতে ৩ হাজার টাকা খরচ লাগবে। আমরা গ্রামের মুখ্য সুখ্য মানুষ কিছুই বুঝি না। নিরুপায় হয়ে তাকে ১৭০০ টাকা দিয়েছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কার্ড পায়নি।

ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আছাদুর রহমান বলেন, বিষয়টি সমাজসেবা অফিসারের মাধ্যমে তিনি শুনেছেন। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে তিনি জানান। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি সদস্য আলেয়া খাতুন বলেন, বয়স্ক ভাতা কার্ড দেওয়ার নামে আমি কারও কাছ থেকে কোন টাকা নেইনি।

উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মোঃ জাহিদুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগী ছায়দার হোসেনের স্ত্রী এই অভিযোগটি করেছেন। তবে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

তবে এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ আশরাফুজ্জামান এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কল রিসিভ করেনি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!