রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৬:৪০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাবনা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক আ জ ম আব্দুল আওয়ান খান স্মরণসভা বৈশাখী ঝড়ে স্কুলের দ্বিতল ভবনের টিনের ছাদ ক্ষতিগ্রস্থ, ব্যাহত শিক্ষা কার্যক্রম সাঁথিয়ায় ২য় দিনেও ক্লাস বর্জন, বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ আমিনপুর থানা আওয়ামীলীগের প্রথম সভাপতি ইউসুফ আলী খান, সম্পাদক রেজাউল হক বাবু কুঁজো মানুষের চিৎ হয়ে শোয়ার স্বপ্ন-আব্দুর রহমান জাতীয় সরকার প্রস্তাব, কুঁজো মানুষের চিৎ হয়ে শোয়ার স্বপ্ন —- আওয়ামীলীগ সভাপতি মন্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় সুজানগরে ছাত্রীকে পিটিয়ে জখম, সহপাঠিদের প্রতিবাদ সুজানগরে সরকারি কালভার্ট ভেঙে নির্মাণ সামগ্রী লুট, তদন্ত কমিটি এমপি পুত্রের স্লিপ অব টাং! হাসপাতোলে অনিয়মের প্রতিবাদ করায় রোগীকে হুমকির অভিযোগ পামেক ছাত্রলীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে

ভাঙ্গুড়ায় অল্পের জন্য সংঘর্ষ থেকে রক্ষা পেল দু’টি ট্রেন!

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত শনিবার, ১৪ মে, ২০২২
Pabnamail24

অল্পের জন্য মুখোমুখি সংঘর্ষের হাত থেকে রক্ষা পেল যাত্রীবাহী দু’টি ট্রেন। যদিও এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। তবে ঘটতে পারত বড় ধরনের দুর্ঘটনা। শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে ঈশ্বরদী-ঢাকা রেলপথে পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার বড়ালব্রিজ রেলস্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।
ট্রেন দু’টি হচ্ছে আন্তনগর ধূমকেতু ও দ্রুতযান এক্সপ্রেস। পরে আধা ঘণ্টা বিলম্বে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায় ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনটি। তবে এ ঘটনা অস্বীকার করেছে স্টেশন কর্তৃপক্ষ।

ট্রেনযাত্রী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাত ১টার দিকে ঢাকা থেকে পঞ্চগড়গামী আন্তনগর দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনটি বড়ালব্রিজ স্টেশন সংলগ্ন রেলব্রিজ অতিক্রম করছিল। এ সময় বিপরীত দিক থেকে একই লাইনে ছুটে আসছিল রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী আন্তনগর ধূমকেতু ট্রেন। অবস্থা বেগতিক দেখে দ্রুতযানের চালক ট্রেনটি রেলব্রিজের ওপর দ্রুত থামিয়ে দেন। এ সময় ধূমকেতু ট্রেনটি ছিল ওই রেলব্রিজের পশ্চিম পাশের কয়েকশ’ গজ দূরে। চালকদের সতর্কতায় মুখোমুখি সংঘর্ষ থেকে রক্ষা পায় ট্রেন দু’টি।

এ ঘটনায় উভয় ট্রেনের যাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে ধূমকেতু ট্রেনটি পাশের ভাঙ্গুড়া স্টেশনে ফিরে গিয়ে এক নম্বর লাইনে অবস্থান নিলে দ্রুতযান ট্রেনটি দুই নম্বর লাইন দিয়ে ছেড়ে যায়। এতে আধা ঘণ্টা বিলম্বে ধূমকেতু ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ধূমকেতু ট্রেনের যাত্রী রাকিবুল ইসলাম জানান, তিনি ধূমকেতু ট্রেনের অপেক্ষায় বড়ালব্রিজ স্টেশনে দাঁড়িয়েছিলেন। রাত ১টার দিকে আন্তনগর দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন ও ধূমকেতু ট্রেন দু’টি একই লাইনে মুখোমুখি হয়। এ সময় দ্রুতযানের চালক বড়ালব্রিজের ওপর ট্রেন থামিয়ে দেয় এবং ধূমকেতু ট্রেনটি পেছনের দিকে গিয়ে ভাঙ্গুড়া স্টেশনে দাঁড়ায়।

বড়ালব্রিজ স্টেশন মাস্টার মামুন হোসেন জানান, ভাঙ্গুড়া ষ্টেশন থেকে সিগন্যাল দেয়া হয়। বিষয়টি তারাই ভালো বলতে পারবেন। আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না।

এ বিষয়ে ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার হাবিবুর রহমান বলেন, কম্পিউটার সিগন্যাল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনটি স্টেশনে আটকে থাকে। ২০ মিনিট পর কম্পিউটার চালু করা গেলে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

তবে দুটি ট্রেন মুখোমুখি এ ঘটনা অস্বীকার করে তিনি আরও বলেন, যদি এমন কিছু ঘটত তাহলে কর্তৃপক্ষ কী আমাকে এখনও এখানে রাখতেন?

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!