বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৪:৩৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

আওয়ামীলীগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ, মামলা দায়ের

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

পাবনার বেড়ায় উপজেলা পরিষদ উপ নির্বাচনে সদ্য মনোনয়ন পাওয়া আওয়ামীলীগের প্রার্থী রেজাউল হক বাবুর উপর হামলার ঘটনায় ৩৮ জন নামীয় ও অজ্ঞাতনামা ৩০ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। রবিবার দুপুরে যুবলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে সাঁথিয়া থানায় এ মামলা দায়ের করেন। সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, বেড়া উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থী রেজাউল হক বাবুকে নিয়ে শনিবার বিকেলে ঢাকা বেড়া ফিরছিলেন অভিযোগকারী জাহিদুলসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীরা। তারা সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে বেড়া সিএন্ডবি বাজারে পৌঁছলে আওয়ামীলীগ নেতা ময়ছের, রমজান, যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান উকিল, আবুল কাশেম ও চৌদ্দের নেতৃত্বে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা পথরোথ করে গাড়িতে গুলি করে, তান্ডব চালায় বলে অভিযোগ এসেছে। এসময় বিশটি মাইক্রোবাস ও প্রাইভেট কার ভাঙচুর করে, গাড়ীতে থাকা কর্মীদের হাসুয়া, চাপাতি, হকিস্টিক দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুত্র জখম করে বলেও অভিযোগে বলা হয়েছে। ওসি আসাদুজ্জামান আরো বলেন, মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে, রেজাউল হক বাবুর উপর হামলার প্রতিবাদে রবিবার সকালে উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ দুলালের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন নেতাকর্মীরা। বেড়া সিএন্ডবি বাজার এলাকায় এ বিক্ষোভ মিছিল শেষে এক পথসভায় হামলাকারী চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের দ্রæত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী জানান তারা।

পথসভায় আব্দুর রশিদ দুলাল বলেন, পাবনা ১ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকুর প্রশ্রয়ে ও তার ভাই বেড়া পৌরসভার বরখাস্ত মেয়র আব্দুল বাতেনের অনুসারী ময়ছার,রমজান ও চৌদ্দর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা শনিবার রাতে জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী ও আওয়ামীলীগ কর্মীদের উপর ন্যাক্কারজনক হমালা চালিয়েছে। তাদের চাাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে বেড়ার মানুষ অতিষ্ঠ। আমরা ৪৮ ঘন্টার মধ্যে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি জানাই। পথসভায় বেড়া পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল মান্নান মানু, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু হেলাল বক্তব্য রাখেন। এ সময় আগামীতে বেড়ায় দল ও প্রভাবশালীদের নাম ভাঙিয়ে সন্ত্রাসীদের কাউকে চাঁদাবাজি করতে দেয়া হবে না বলেও হুমিয়ারী উ”্চারণ করেন তিনি।

 

দুলাল আরো বলেন, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু এমপির ভাই আব্দুল বাতেন নিজ অপকর্মের কারনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বেড়া পৌর মেয়র পদ থেকে বরখাস্থ হয়েছেন। বিষয়টির জন্য টুকু সাহেব অযথাই আমাদের দায়ী করছেন। তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হওয়ায় পুলিশ প্রশাসনকে তার নিজের মতো করে ব্যবহার করছেন। আজকের হামলার সময়ও পুলিশ নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছেন। আমরা বেড়া থানা পুলিশের এমন আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই। তাদের নিরপেক্ষ ভূমিকা প্রত্যাশা করছি।

এদিকে, শনিবারের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে জড়িতদের শাস্তি দাবী করেছেন বেড়া উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে সদ্য মনোনয়ন প্রাপ্ত রেজাউল হক বাবু। তিনি বলেন বড় দল হিসেবে আওয়ামীলীগে মনোনয়ন নিয়ে প্রতিযোগীতা থাকতেই পারে। কিন্তু সভানেত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত অমান্য করে এমন হামলা মেনে নেওয়া যায়না। কাপুরুষোচিত এই হামলার বিচার দাবী করছি।

বাবু আরো অভিযোগ করেন, সন্ত্রাসীরা ঢালারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিনের ছেলে মিরাজ হোসেনের মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তার মোটর সাইকেল ছিনতাই করে নিয়ে গেছে। পুলিশ এখনো সদ্য কেনা মোটরসাইকেলও উদ্ধার করতে পারে নি। এ বিষয়ে বেড়া সার্কেল এর সহকারী পুলিশ সুপার শেখ জিল্লুর রহমান বলেন, শনিবার বেড়ায় আওয়ামীলীগ প্রার্থীর লোকজনের উপর দূর্বৃত্তরা হামলা চালিয়েছেন এবং কয়েকটি বি®েফারনের ঘটনাও ঘটেছে। আওয়ামীলীগের দুইপক্ষের মুখোমুখি অবস্থানের কারণে এলাকায় কিছুটা উত্তেজনা থাকলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। বিশৃংখলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, প্রভাবশালী কারো দ্বারা পুলিশ প্রভাবিত নয়, আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। এ বিষয়ে, শনিবার ও রবিবার পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য শামসুল হক টুকুর সাথে কথা বলতে মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলেও তিনি তা রিসিভ করেননি। তার এপিএস সাজিদকে ফোন দিয়ে এ বিষয়ে কথা বলার কথা জানালে তিনি বলেন, স্যার ঢাকায় বিভিন্ন মিটিংয়ে ব্যস্ত আছেন, প্রয়োজন হলে তিনি কলব্যাক করবেন। ইউএনও লাঞ্ছিতের মামলায় পলাতক বেড়া পৌরসভার বরখাস্ত মেয়র আব্দুল বাতেনের মুঠোফোনটিও বন্ধ পাওয়া গেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!