শনিবার, ২১ মে ২০২২, ১২:২৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় সুজানগরে ছাত্রীকে পিটিয়ে জখম, সহপাঠিদের প্রতিবাদ সুজানগরে সরকারি কালভার্ট ভেঙে নির্মাণ সামগ্রী লুট, তদন্ত কমিটি এমপি পুত্রের স্লিপ অব টাং! হাসপাতোলে অনিয়মের প্রতিবাদ করায় রোগীকে হুমকির অভিযোগ পামেক ছাত্রলীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে জনশুমারি, পাবনায় আগামী ১৫ থেকে ২১ জুন অনুষ্ঠিত হবে রাধানগর অবৈধ ভাবে ভোজ্য তেল মজুদ, জরিমানা আদায় বেড়া-সাঁথিযায় আধা পাকা ধান নিয়ে কৃষকের যুদ্ধ,পানিতে নষ্ট হচ্ছে পাট বেড়ার চরে গো-খামারে ভাগ্যবদল রেলমন্ত্রীর আত্মীয় কান্ডে তদন্তে টিটিই শফিকুল নির্দোষ প্রমাণিত সাঁথিয়ায় মৃত গরুর মাংশ বিক্রয় করায় কসাইকে ১বছরের কারাদন্ড

আ. লীগের সম্মেলনে যোগ দেয়ায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান-বাড়িতে হামলা ভাংচুর; আহত ৪

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
Pabnamail24

পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে পাবনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য খন্দকার আজিজুল হক আরজুর সমর্থনে যোগ দেয়ায় সমর্থকদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, মারপিটের অভিযোগ উঠেছে বেড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জাতসাকিনী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল হক বাবু সমর্থিত লোকজনের বিরুদ্ধে।

রোববার দুপুরে ও বিকেলে বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার নগরবাড়ি ঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় ৪ জনকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, বাজারের ব্যবসায়ী এবং স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত শনিবার পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন উপলক্ষে পাবনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি খন্দকার আজিজুল হক আরজুর সমর্থনে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মি সম্মেলনে যোগ দেন। সাবেক এমপি আরজুর সমর্থনে সম্মেলনে যোগ দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যা ও জাতসাকিনী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল হক বাবুর অনুসারীরা।

আহতরা জানান, রোববার দুপুরে নগরবাড়ি ঘাটের সর্দার সানুর নেতৃত্বে রোকন, রওশন, হাসেম, মোয়াজ্জেম, জুয়েল, সুজন, মোস্তফা, সালমান, রাজা, তপুসহ ১৫/২০ জনের একদল সন্ত্রাসী পুরান ভারেঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান শেখ, সাধারণ সম্পাদক জিলাল, যুবলীগ নেতা ইয়াহিয়াসহ কমপক্ষে ৭ জনকে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্র, লাঠি, হকিস্টিক ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় দোকানের আসবাবপত্র, বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, চেয়ার টেবিল ও মালামাল ভাংচুর করে। যাওয়ার সময়ে সন্ত্রাসীরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর করে চলে যায়।

স্থানীয়রা আরও জানান, বাজারের অদূরেই বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ঈমান হাজী, ইকরাম, ইব্রাহিম, আব্বাস, জিল্লা, আসাদুলসহ ৮/১০ জনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। সন্ত্রাসীদের হামলায় পুরানভারেঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান শেখ (৪৭), সম্পাদক জিলাল (৪৫), ইব্রাহিম (২৮), কানন শেখ (১৮) গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান শেখ বলেন, আমাদের ব্যবসায়ী কোন দ্বন্দ্ব নয়। আওয়ামীলীগের সম্মেলনে যাওয়ার অপরাধে বাবু চেয়ারম্যানের ক্যাডার ঘাটের সর্দার সানু, তার ছেলেসহ কিশোর গ্যাং বাহিনী আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসে হামলা চালিয়ে মারধর করেছে।

আহতরা জানান, রোববার দুপুরে নগরবাড়ি ঘাটের সর্দার সানুর নেতৃত্বে রোকন, রওশন, হাসেম, মোয়াজ্জেম, জুয়েল, সুজন, মোস্তফা, সালমান, রাজা, তপুসহ ১৫/২০ জনের একদল সন্ত্রাসী পুরান ভারেঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান শেখ, সাধারণ সম্পাদক জিলাল, যুবলীগ নেতা ইয়াহিয়াসহ কমপক্ষে ৭ জনকে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্র, লাঠি, হকিস্টিক ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় দোকানের আসবাবপত্র, বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, চেয়ার টেবিল ও মালামাল ভাংচুর করে। যাওয়ার সময়ে সন্ত্রাসীরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর করে চলে যায়।

স্থানীয়রা আরও জানান, বাজারের অদূরেই বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ঈমান হাজী, ইকরাম, ইব্রাহিম, আব্বাস, জিল্লা, আসাদুলসহ ৮/১০ জনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। সন্ত্রাসীদের হামলায় পুরানভারেঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান শেখ (৪৭), সম্পাদক জিলাল (৪৫), ইব্রাহিম (২৮), কানন শেখ (১৮) গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান শেখ বলেন, আমাদের ব্যবসায়ী কোন দ্বন্দ্ব নয়। আওয়ামীলীগের সম্মেলনে যাওয়ার অপরাধে বাবু চেয়ারম্যানের ক্যাডার ঘাটের সর্দার সানু, তার ছেলেসহ কিশোর গ্যাং বাহিনী আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসে হামলা চালিয়ে মারধর করেছে।

অভিযোগের বিষয়ে বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল হক বাবু বলেন, কি হয়েছে আমি জানতাম না। আমি নাটোরে আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ছিলাম। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন ফোন দিয়ে বিষয়টি আমাকে জানিয়েছে। এ ঘটনার সাথে আমার কোন সম্পৃক্ততা নেই। আমাকে অসৎ উদ্দেশ্যে জড়িয়ে স্বার্থ উদ্ধারে একটি গ্রুপ বেশ অপতৎপরতা চালাচ্ছে।

আমিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলী বলেন, ব্যবসায়ী দ্বন্দ্বে সামান্য বিশৃংখলা হয়েছিল। খবর পেয়ে পুুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসে। বাড়ি ঘর ভাংচুর, হামলা ও মারধরের বিষয়ে তিনি বলেন, এ ধরণের কোন খবর আমার কাছে নেই। ছোট খাটো ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!