শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০১:০৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
পাবনায় ঘূর্ণিঝড় রেমাল, ঝড়ো বাতাস, সড়কে গাছ পড়ে বন্ধ যান চলাচল সুজানগরে আবারো সংঘবদ্ধ ধর্ষণ-গ্রেপ্তার ১, আইন শৃংখলা নিয়ে প্রশ্ন ! আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঈশ্বরদীর রানা সরদারের প্রার্থীতা বাতিল ওয়ারেন্টভূক্ত মামলায় গ্রেফতার ভাঁড়ারা ইউপি চেয়ারম্যান সুলতান ঈশ্বরদীতে নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা, ৬ জন আহত কাপ পিরিচ প্রতীকের প্রচারণায় হামলা, প্রার্থীর স্ত্রীসহ আহত ৩ চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া ও ফরিদপুরে নির্বাচিত হলেন যারা সুজানগরে নিয়ন্ত্রণহীন লরি চাপায় ২ যুবক নিহত ভাঙ্গুড়ায় কৃষিজমি থেকে অবৈধভাবে মাটি উত্তোলনে জরিমানা চরাঞ্চলে আলো ছড়াচ্ছে তাসকিনা সিনথী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়

পাবিপ্রবিতে পদার্থ, গণিত ও রসায়ন অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে রবিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ‘প্রিসাইজ এনার্জি’র উপর পদার্থ, গণিত ও রসায়ন অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়েছে। অলিম্পিয়াড উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কে এম সালাহ্ উদ্দীন এবং বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ। সভাপতিত্ব করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. খায়রুল আলম। অলিম্পিয়াডটি আয়োজন করে রাশিয়ান এনার্জি প্রতিষ্ঠান রোসাটমের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ‘এনার্জি অব দ্য ফিউচার’ এবং সহযোগিতায় ছিল পাবিপ্রবির পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বলেন, গবেষণার মাধ্যমে জ্ঞানকে নতুন রূপে উদ্ভাবন করে আমাদের সামনে যেতে হবে। প্রতিটি কাজে পূর্ব প্রস্তুতি গ্রহণ এবং সেভাবে সম্পন্ন করতে হবে। জ্ঞানের খোলা দরজা হতে জ্ঞান আহরণ করা এবং সেটি সঠিকভাবে প্রয়োগ ঘটাতে হবে। এই অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে আমরা প্রতিভা খুঁজে পাব, যা স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। তিনি আরও বলেন, আমাদের ভালো কাজ করতে হবে এবং সেগুলোর প্রচারও বাড়াতে হবে। ইতিবাচক বিষয়গুলো বেশি বেশি উপস্থাপন করে সমাজকে জানাতে হবে। ইতিবাচক ভাবনা থেকেই ভালো কিছু করা সম্ভব। সেই সাথে জীবনে উন্নতি করা এবং ভবিষ্যতের পথ আরও সহজ ও সমৃণ হয়ে উঠে।

উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান বলেন, সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য একসাথে কাজ করতে হবে। আমাদের ভিতর থেকে জানার আগ্রহকে জাগ্রত করা এবং সেভাবে কাজ করতে হবে। ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ এবং রাষ্ট্রের প্রতিটি ক্ষেত্রে ভালো কাজের মাধ্যমে এগিয়ে যেতে হবে। এধরনের আয়োজনের মধ্য দিয়ে আমরা টেলেন্ট খুঁজে বের করতে পারব বলে প্রত্যাশা করছি।

কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কে এম সালাহ্ উদ্দীন বলেন, সুযোগের মাধ্যমে একজন শিক্ষার্থীর চিন্তা শক্তির বিকাশ ঘটে। তাদের জন্য আমাদের আরও বেশি সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। এধরনের অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা অনেক কিছু শেখার সুযোগ পাবে এবং আমরা অনেক টেলেন্ট খুঁজে পাব।
সকাল ১১টায় অলিম্পিয়াডটি ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান ভবনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে পদার্থ, গণিত ও রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা প্রাথমিক পর্বে অংশগ্রহণ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..