শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৩৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টে নিমফুল রিফাত সৃতি সংঘের ২ উইকেটে জয় পাবিপ্রবি ভিসির বিরুদ্ধে নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ, গনিত বিভাগের চেয়ারম্যান লাঞ্ছিত সাঁথিয়ায় দেবরের ঘরে ভাবির বিয়ের দাবিতে আমরণ অনশন আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলায় পাবনা ইগলস জয়ী পাবনায় আদালত চত্বর থেকে সাক্ষী অপহরণ, বাধা দেয়ায় লাঞ্ছিত ৩ আইনজীবী চলনবিলে শীত উপেক্ষা করে কৃষকরা বোরো রোপণে ব্যস্ত ঈশ্বরদীতে শিশু হত্যা মামলায় এক আসামির যাবজ্জীবন চলনবিলাঞ্চলে শীতে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ চাটমোহরে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দুধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে নির্বাচনী সংঘাতে এলাকাছাড়া পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

বিএফইউজের নবনির্বাচিত কোষাধ্যক্ষ খায়রুজ্জামান কামালকে পাবনায় সংবর্ধনা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২১
Pabnamail24

বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব জার্নালিষ্টর (বিএফইউজে) এর কোষাধ্যক্ষ নির্বাচিত হওয়ায় পাবনার কৃতি সন্তান খায়রুজ্জামান কামালকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে পাবনায় কর্মরত সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে পাবনা প্রেসক্লবা মিলনায়তনে এই সংবর্ধণা সভায় সভাপতিত্ব করেন পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান।

পাবনা প্রেসক্লাবের সাহিত্য ও সাষ্কৃতিক সম্পাদক দৈনিক বিবৃতির বার্তা সম্পাদক ইয়াদ আলী মৃথা পাভেলের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার সিনিয়র রির্পোটার আনোয়ার উদ্দিন, পাবনা প্রেসক্লাব সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ, সিনিয়র সহসভাপতি মির্জা আজাদ, সহসভাপতি শহীদুর রহমান শহীদ, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি, পাবনা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, প্রেসক্লাবের সহ সম্পাদক তপু আহমেদ, পাবনা রিপোটার্স ইউনিটির সাধারন সম্পাদক কাজী মাহাবুব সোর্শেদ বাবলা, প্রেসক্লাবের ক্রীড়া সম্পাদক কলিট তালুকদার,কল্যাণ সম্পাদক সরোয়ার উল্লাস, বাসসের জেলা প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম সুইট প্রমুখ। অনুষ্ঠানে শুরুতেই ফুলের শুভেচ্ছা জানান হয় কামালকে।

পরে শুভেচ্ছা বক্তব্যে বক্তারা বলেন, বর্তমান সময়ে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে নানা ধরনের হয়রানি করা হচ্ছে। এই আইন সংশোধন করার জন্য কেন্দ্রীয় পর্যায়ে গণমাধ্যম কর্মীদের প্রতিনিধি অভিভাবক সকলের প্রতি সঠিক পদক্ষেপ নেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। একই সাথে আসছে বছর পাবনা প্রেসক্লবারে ৬০ পূর্তিতে দেশের সকল সুনামধন্য গণম্যমকর্মীদের একত্রীত করার জন্য পরিকল্পনা কথা বলেন। জাতীয় প্রেসক্লাবের পরেই প্রতিষ্ঠিত পাবনা প্রেসক্লাব।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মোঃ খায়রুজ্জামান কামাল বলেন, নদী ভাঙ্গন আর নানা প্রতিকুলতার মধ্যে বেড়ে উঠা আমার এই জেলা শহর পাবনাতে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষা জীবন শেষ করে সাংবাদিকতা পেশা বেছে নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষারত অবস্থায় সাংবাদিকতা শুরু তবে পাবনাতে থাকা কালিন এখানে দৈনিক বিবৃতিতে কাজ করেছি। দেশে ঢাকা থেকে বের হওয়া বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করেছি। ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে আমি জড়িত আছি। সারা বাংলাদেশের এই সংগঠনের সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি আমরা। সব সময় চেষ্টা করেছি দেশের সকল গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে যোগাযোগ রাখার তাদের জন্য কাজ করার। নির্বাচনের পরেই আমি ছুটে এসেছি নিজের জেলাতে। পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে চলে আসি সাংবাদিকদের ডাকে। আমরা পাবনার যে যেখানে আছি সকলেই চেষ্টা করছি জেলার জন্য কিছু করার। পাবনার প্রেসক্লাবের সকলের সাথে আসার আত্মার সম্পর্ক। তবে ঢাকার সকল সংগঠনের সাথে অন্যান্য জেলার সাংবাদিকদের যে সম্পর্ক পাবনার সাংবাদিকদের তেমন নেই। সেতুবন্ধ তৈরি করতে হবে। আমরা আমাদের অবস্থান শক্ত করার জন্য সকলের চেষ্টা করতে হবে। তবেই আমরা এগিয়ে যেতে পারবো।

পেশাগত সাংবাদিকতা করতে গিয়ে কোন সমস্যার সৃষ্টি হলে আমরা আপনাদের সাথে আছি। কোন সাংবাদিকের মানবাধিকার ক্ষুন্ন হলে আমরা তার আইনগত সহযোগিতা ও আমাদের সংগঠন তাদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবো। আমরা সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে সবসময় সোচ্চার থাকবো বলে জানান তিনি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!