বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১২:১৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলায় পাবনা ইগলস জয়ী পাবনায় আদালত চত্বর থেকে সাক্ষী অপহরণ, বাধা দেয়ায় লাঞ্ছিত ৩ আইনজীবী চলনবিলে শীত উপেক্ষা করে কৃষকরা বোরো রোপণে ব্যস্ত ঈশ্বরদীতে শিশু হত্যা মামলায় এক আসামির যাবজ্জীবন চলনবিলাঞ্চলে শীতে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ চাটমোহরে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দুধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে নির্বাচনী সংঘাতে এলাকাছাড়া পরিবারের সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে পাবনায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন পাবনায় পদ্মা নদীর বুকে সেই রাস্তা অপসারণ করলো প্রশাসন রূপপুর প্রকল্পে থামছে না চুরি, এবার ক্যাবল চুরি

রাস্তায় হাটু পানি, দুর্ভোগে আতাইকুলা’র সারদিয়ার মানুষ

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১
Pabnamail24

চারিদিকে শুকনো অথচ হালকা বৃষ্টিতেই এক সপ্তাহের অধিক সময় ধরে জলাবদ্ধত হয়ে থাকে। পাবনা সদরের আতাইকুলা ইউনিয়ন এর অন্তর্গত সারদিয়ার গ্রামের বাজার সংলগ্ন পালপাড়ার রাস্তাটি। ফলে পালপাড়ার ৩০ টি পরিবারের শতাধিক মানুষ সহ মাটির তৈজসপত্র ক্রয়কারী ক্রেতারা পড়েন চরম দুর্ভোগে। এছাড়া বিকেল হলে বাড়ির পাশে বাজার হওয়া সত্ত্বেও এলাকাবাসীর অনেক দূর্ভোগ পোহাতে হয় বাজারে যেতে।

সারা বছর রাস্তা শুকনো। কিন্তু বর্ষার মৌসুম সহ হালকা বৃষ্টি হলেই রাস্তায় হাটু সমান পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিকট বহুবার বিষয়টির জন্য আবেদন করা হয়। বিষয়টি তাদের দৃষ্টিগোচর হলেও প্রায় এক যুগ ধরেও রাস্তাটি পাকাকরণ বা সঠিক কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেন নি। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছবি সহ প্রচার এর মাধ্যমে ক্ষোভ জানিয়েছেন। পালপাড়ায় প্রতিদিনই শত শত মানুষ মাটির তৈজসপত্র ক্রয় করতে আসেন। তাদেরই একজন বলেন, “আমাদের প্রায় নিত্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন মাটির তৈজসপত্র কেনার প্রয়োজন পড়ে। চারিদিকে শুকনো, শুধু এই রাস্তায় জলাবদ্ধতার জন্য আমরা আজকাল প্রয়োজন থাকা সত্ত্বেও কিছু কিনতে যেতে পারি না।”

পাবনা- ৫ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপির কাছে এলাকাবাসীর চাওয়া “আমাদের এমপি মহোদয় আশ পাশের সকল রাস্তা ঘাট মেরামত করে তৈরিকরণ করলেও আমাদের এই রাস্তাটির যার দৈর্ঘ্য (১০০ মিটার প্রায়) কোনো সুরাহা হলো না। এমপি মহোদয় এর নিজের পিতৃস্থান এই সারদিয়ার। তার হাত ধরেই আমরা রাস্তাটির দ্রুত সংস্কার চাই।”
উল্লেখ্য, প্রতিদিন এই রাস্তায় মানুষ সহ মাটি বোঝাই গাড়ি, মোটরসাইকেল চলাচল করে। রাস্তায় জলাবদ্ধতা ও খালখন্দ, কাঁদার কারণে অনেক সময় গাড়ি উল্টে যায়। তাই এই কাঁচা রাস্তায় প্রতিবছর সকল পরিবার মিলে মাটি দিয়ে ভরাট করলেও দুদিন পর অবস্থা আগের মতোই হয়ে যায় যায়। তাই রাস্তা পাকাকরণের মাধ্যমে স্থায়ী একটি ব্যবস্থার প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!