শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫৫ অপরাহ্ন

পাবনায় ৩২৬ মণ্ডবে শারদীয়া দুর্গাপূজার প্রস্তুতি চলছে পুরোদমে

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
Pabnamail24

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে এবং স্বল্প আয়োজনে পাবনা জেলার নয় উপজেলায় হিন্দু ধর্মের সবচেয়ে বৃহৎ উৎসব শারদীয়া দুর্গাপূজার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
পাবনা জেলা পুলিশ প্রশাসন ও জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, এ বছর জেলার নয় উপজেলায় ৩২৬টি মণ্ডবে শারদীয়া দুর্গাপূজা উদযাপন হচ্ছে। এখন প্রতিমা তৈরী এবং প্রতিমায় রং তুলির আচর দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কারীগররা।

পাবনা জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাদল ঘোষ জানিয়েছেন, বর্তমান মরণঘাতী করোনার কারণে গত বারের চেয়ে কমিয়ে এবার ৩২৬টি পূজা মন্ডবে শারদীয় দুর্গপূজা উদযাপন করা হচ্ছে। তবে এবার এই মহা দুর্যোগের কারণে পূজায় আড়ম্বরপূর্ণ হবে না। মন্দিরগুলোতে উচ্চ শব্দে মাইক এবং ব্যান্ডপার্টির কোন বাজনাও থাকবে না। শুধু ঢাক-কাশি বাজিয়ে পূজা সম্পন্ন করা হবে। শুধুমাত্র মন্দিরের ভিতরে প্রতিমা দেখার জন্য লাইটিং করা হবে। ব্যাপক পরিসনে কোন আলোকসজ্জা করা হবে না।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাতে ভক্তরা প্রতিমা দর্শন করতে পারেন সে ব্যাপারে মন্দির কমিটি এবং আইনশৃংখলা বাহিনী যথাযথ দায়িত্ব পালন করবেন। দায়িত্বরতরাও সম্পূর্ণ স্বাস্থ্য বিধি মেনে তাদের দায়িত্ব পালন করবেন। দুর্গা পূজার তীথি অনুযায়ী আগামী ২২ অক্টোবর দেবীর আমন্ত্রণ ও আসনে অধিবাসের মধ্যদিয়ে দুর্গা পূজা শুরু হবে। এর পর ২৬ অক্টোবর প্রতিমা বিসর্জনে মধ্যে দিয়ে শেষ হবে পাঁচ দিনের শারদীয় এই উৎসব। এ বছর দেবীর দোলায় আগমন এবং গজে গমণ। এছাড়া প্রতিটি পূজা মন্ডবে সীমিত আকারে সামাজিক নিরাপত্তা বজায় রেখে সুষ্ঠুভাবে পূজা উদযাপনের জন্য প্রশাসন থেকে আগেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ইতোপূর্বেই আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা সুষ্ঠু-সুন্দরভাবে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে উদযাপন এবং সার্বিক নিরাপত্তার পরিকল্পনা নিয়ে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিভিন্ন পূজা মণ্ডবের প্রতিনিধিদের নিয়ে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত এ সম্পর্কিত সভায় পূজা পালনের সব ধরণের প্রস্তুতির বিষয়ে আলোকপাত করা হয়। সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম, পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ, দমকলবাহিনী, র‌্যাব এর কর্মকর্তাগণ, পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাদল ঘোষসহ পূজা উদযাপন কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পাবনা জেলা প্রশাসক মোঃ কবীর মাহমুদ জানান,“ পাবনা জেলায় শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসবের জন্য প্রতিটি মন্দিরের জন্য অর্ধটন(৫০০ কেজি) হিসেবে মোট ১৬৩ টন চাউল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবারের সভায় পূজা উপলক্ষে যাবতীয় দিকনির্দেশনা ইতোমধ্যেই দেয়া হয়েছে। সেখানে সংশ্লিষ্ট সব দপ্তরের কর্মকর্তাগণ ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিময় সভায় অরিক্তি পুলিশ সুপার মাসুদ আলম সভায় জানান,“নিরাপদ ও নিরাপত্তার সাথে পূজা উদযাপনের জন্য সব ধরণের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উৎযাপনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতিমা প্রস্তুত কালীন সময় থেকেই শহরে এবং বিভিন্ন গ্রামে মন্দিরগুলোতে সতর্ক দৃষ্টি রাখা হয়েছে। পূজা শুরু হলে মন্দিরে পুলিশ ও আনসার নিয়োজিত থাকবে এবং পুলিশ ও র‌্যাবের টহল টিম থাকবে।” করোনার কারনে এবার স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সীমিত পরিসরে দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে বলেও এ পুলিশ কর্মকর্তা জানান।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!