মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৩১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা উজ্জ্বলের বক্তব্যের প্রতিবাদে সুজানগরে মানববন্ধন শুরু হয়েছে দূর্গাপূজা, আজ মহা সপ্তমী পাবনায় ব্যবসায়ীকে গুলি করে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক তোয়াব খানের মৃত্যুতে পাবনা প্রেসক্লাবের শোক পাবনার হেমায়েতপুর ও মালিগাছায় আওয়ামীলীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত শ্রদ্ধা ভালোবাসায় সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের শেষকৃত্য সম্পন্ন পাবনায় শারদীয় দুর্গোৎসব উপেলক্ষ্যে মর্জিনা লতিফ ট্রাস্টের বস্ত্র বিতরণ একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের শেষকৃত্য সম্পন্ন পাবনায় ভাইয়ের দায়ের কোপে প্রাণ গেল ইসলামী আন্দোলনের নেতার ঈশ্বরদীতে গৃহবধূকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

পাবনায় ভাষা সংগ্রামীদের সম্মাননা, পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
Pabnamail24

মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে পাবনায় ভাষা সংগ্রামীদের সম্মাননা, প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে ভাষা আন্দোলনের স্মৃতিচারণ করেন একুশে পদক প্রাপ্ত সাংবাদিক ভাষা সংগ্রামী রণেশ মৈত্র।

জেলা প্রশাসক বিশ্বাস রাসেল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল, পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খানসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রধানগণ।

ভাষা সংগ্রামী রণেশ মৈত্র বলেন, ঢাকার বাইরে ভাষা আন্দোলনের গুরুত্বপূর্ণ স্থান গুলোর মধ্যে অন্যতম পাবনা। ১৯৪৮ থেকে ৫২ সাল পর্যন্ত পাবনার ছাত্রনেতারা রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে ধারাবাহিক অবদান রাখেন। একই সাথে স্থানীয় পর্যায়ের ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস সংরক্ষণের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি বলেন, আমাদের মানসিকতার দোষে, অনুকরণ প্রবণতার কারণে বিদেশি ভাষার আগ্রাসনে বাংলা ভাষার মাধুর্য, সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে। অনেক শব্দ হারিয়ে যাচ্ছে। বাংলা ভাষার অস্তিত্ব বিলুপ্ত হবার আশংকা দেখা দিয়েছে। প্রিন্স এমপি বাংলা ভাষার বিকৃতি রোধে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান জানান।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল বলেন, ভাষা আন্দোলন প্রগতিশীল রাজনৈতিক আন্দোলনের ঐতিহাসিক বিজয়ের দৃষ্টান্ত। একুশের চেতনা ও প্রেরণায় আমরা স্বাধীন জাতিসত্ত্বার পরিচয় পেয়েছি। জেলা প্রশাসক বিশ্বাস রাসেল হোসেন ও পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের নিকট তুলে ধরার তাগিদ দেন।

পরে,রণেশ মৈত্র, আমিনুল ইসলাম বাদশা, কমরেড প্রসাদ রায়, আনোয়ারুল হক, রওশন জান চৌধুরী, দেওয়ান লুতফর রহমান, অধ্যাপক ফখরুল ইসলাম জেলার সাত ভাষা সংগ্রামীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তাদের পরিবারের সদস্যদের হাতে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!