বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :

পাবনামেইলের সংবাদে তোলপাড়, অবশেষে মামলা নিলেন আমিনপুরের ওসি

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২৩

বিতর্কের জেরে পাবনার আমিনপুর থানার ভাটিকয়া গ্রামের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ঘটে যাওয়া হামলার ঘটনায় অবশেষে মামলা নিয়েছেন পাবনার আমিনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আনিসুর রহমান। গত বুধবার (১১ অক্টোবর) এ মামলা নথিভূক্ত করা হয়। মামলায় আসামির তালিকায় কাদের মাস্টার ও তার স্ত্রী সালমার নামও রয়েছে। এছাড়া হামলাকারী বাদশা শেখকে প্রধান আসামি সহ নামীয় ১৪ ও অজ্ঞাতনামা ১৪/১৫ জনকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাদী সালাম শেখ জানান, পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ দেবার পর গতকাল মামলা নথিভূক্ত করা হয়েছে বলে জেনেছি। তদন্তের প্রয়োজনে পুলিশও এসেছিলো। শুরুতে যেহেতু মামলাই নিতে চাওয়া হয়নি সেহেতু এই তদন্ত কতটুকু সঠিক হবে তা নিয়ে আমি শঙ্কিত। একইসাথে নিজের নিরাপত্তা নিয়েও আশঙ্কায় রয়েছি। সবশেষে পরিবারসহ আমার নিজের নিরাপত্তা দাবির পাশাপাশি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হামলাকারীদের বিচার চাই।

প্রসঙ্গত, আমিনপুর থানার আওতাধীন ভাটিকয়া গ্রামের সালাম শেখ ও প্রতিবেশী বাদশা শেখের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছিলো। এরই জেরে গত ১ অক্টোবর বাদশা শেখ দলবলে বাঁশের লাঠি, রড, চাইনিজ কুড়াল ও চাপাতি সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সালাম শেখের বাড়ি হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এসময় বাড়িতে থাকা সালাম শেখের স্ত্রী ও শ্বাশুড়িকে মেরে জখম করা হয়। এঘটনার পরদিন স্বাক্ষ্য-প্রমাণ নিয়ে আমিনপুর থানায় মামলা করতে গেলে ওসি থানায় তাদের আটকে রেখে এজাহার থেকে প্রভাবশালী কাদের মাস্টার ও তার স্ত্রীর নাম বাদ দিতে বলেন।

এতে সালাম শেখ রাজি না হলে জোরপূর্বক অন্য একটি এজাহারে স্বাক্ষরও করিয়ে নেন ওসি আনিসুর রহমান। এরপর এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে পাবনার পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী আব্দুস সালাম শেখ। এরপর গত বুধবার (১১ অক্টোবর) এ মামলা নেন ওসি আনিসুর রহমান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..