মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ঈশ্বরদীতে উপনির্বাচনের সভায় বিএনপির দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ১৫ ‘উপনির্বাচনে কারচুপি হলে ঈশ্বরদী থেকেই সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে’- আমান উল্লাহ পাবনা-৪ উপ-নির্বাচনের প্রচারণায় উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি, করোনা সংক্রমণের আশংকা পাবনা-৪ উপনির্বাচন-আসন ধরে রাখতে মরিয়া আ’লীগ, পুনরুদ্ধারের চেষ্টায় বিএনপি ভাঙ্গুড়ায় বৃক্ষ বিতরণ ও রোপণ করল ‘মানবিক ভাঙ্গুড়া’ পাবনা-নাজিরগঞ্জ সড়কের বেহলা অবস্থা, দুর্ভোগ চরমে পাবনায় ‘অঙকুর সমাজ সেবা সংঘ’র বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচী পাবনার সৌমিক পরিবহনে মাদক, বগুড়ায় চালকসহ আটক ৬ হান্ডিয়ালের চাঞ্চল্যকর হাবিব হত্যার আসামীকে সিলেট থেকে গ্রেফতার আমিনপুরে ডিঙ্গি নৌকা বাইচের চুড়ান্ত খেলা অনুষ্ঠিত

আ’লীগ বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী চূড়ান্ত পাবনা-৪ আসনে

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

পাবনা-৪ আসনের উপনির্বাচনে তিন দলের প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে সংশ্লিষ্ট মনোনয়ন বোর্ড। দলগুলো হচ্ছে- আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি। আসছে ২৬ সেপ্টেম্বর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনীত হয়েছেন ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মো. নুরুজ্জামান বিশ্বাস। বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও জেলা দলের আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিবকে। জাতীয় পার্টির প্রার্থী হয়েছেন মো. রেজাউল করিম। তিনি জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য।

উল্লেখ্য, গত ২ এপ্রিল পর পর পাঁচবার নির্বাচিত সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু মারা যাওয়ার পর পাবনা-৪ আসনটি শূন্য হয়। নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এ আসনে।

দীর্ঘ ২৫ বছর আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণে পাবনা-৪ আসন। দলীয় প্রার্থী হিসেবে সার্বিক বিবেচনায় আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত নেতা ছাত্র রাজনীতি, যুব রাজনীতি ও আওয়ামী লীগের রাজনীতির ধারাবাহিকতায় উঠে আসা এবং উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে তিনবার বিজয়ী বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান বিশ্বাসকে মনোনয়ন দেয়ায় নেতাকর্মীদের মাঝে অনেকটা স্বস্তি ফিরেছে।

অন্যদিকে বিএনপির হাবিবুর রহমান হাবিব চতুর্থবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার ও হাবিবের মধ্যে দীর্ঘদিন দ্বন্দ্ব লেগে থাকায় তিনি নির্বাচনে একবারও সুবিধা করতে পারেননি। এখনও এ সমস্যার সমাধান হয়নি। ফলে সব পর্যায়ের কর্মীদের সংগঠিত করে নির্বাচনে পরিবেশ তৈরি করা হাবিবের জন্য বেশ কঠিন হয়ে আছে।

অপরদিকে ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া উপজেলায় জাতীয় পার্টির তেমন অবস্থান না থাকলেও নির্বাচনী রাজনীতিতে রেজাউল করিম প্রার্থী হয়েছেন বলে অনেকের ধারণা।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!