বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৩০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলায় পাবনা ইগলস জয়ী পাবনায় আদালত চত্বর থেকে সাক্ষী অপহরণ, বাধা দেয়ায় লাঞ্ছিত ৩ আইনজীবী চলনবিলে শীত উপেক্ষা করে কৃষকরা বোরো রোপণে ব্যস্ত ঈশ্বরদীতে শিশু হত্যা মামলায় এক আসামির যাবজ্জীবন চলনবিলাঞ্চলে শীতে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ চাটমোহরে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দুধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে নির্বাচনী সংঘাতে এলাকাছাড়া পরিবারের সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে পাবনায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন পাবনায় পদ্মা নদীর বুকে সেই রাস্তা অপসারণ করলো প্রশাসন রূপপুর প্রকল্পে থামছে না চুরি, এবার ক্যাবল চুরি

চাটমোহরে আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়েছে, শঙ্কিত অভিভাবক

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার চাটমোহরে একের পর এক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটছে। এতে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন অভিভাবকরা। চলতি মাসে এ উপজেলায় তিন শিক্ষার্থী ও এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। এনিয়ে চলতি বছরের প্রথম সাড়ে ৫ মাসে ২১ জন নারী, শিশু ও পুরুষ গলায় ফাঁস নিয়ে ও কীটনাশক বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

চাটমোহর থানার চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) হাসান বাশীর জানান, পারিবরিক কলহ, প্রেমজনিত কারণ, দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে কিংবা অন্য কোন কারণে এসকল আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

গত সোমবার (১৪ জুন) সকালে পুলিশ উপজেলার ছাইকোলা পশ্চিমপাড়া থেকে এক স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। রোববার দিবাগত রাতের কোন একসময় নিজ শোবার ঘরের ডাবের সাথে গলায় গামছা পেঁচিয়ে ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে সে। নিহত স্কুলছাত্র হলো ওই গ্রামের আঃ মালেকের ছেলে ও ছাইকোলা হাইস্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র আরাফাত হোসেন জীম (১৪)। কী কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি।

শনিবার (১২ জুন) গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছে অপর এক গৃহবধূ। এদিন বিকেলে উপজেলার নিমাইচড়া ইউনিয়নের বিশ^নাথপুর গ্রামে কীটনাশক (গ্যাস ট্যাবলেট) খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন শিল্পী খাতুন (৩৭) নামের এক গৃহবধূ। সে ওই গ্রামের আনিস মুন্সির স্ত্রী। পরিবারের লোকজন জানান, স্বামীর সাথে ঝগড়ার জের ধরে শিল্পী গ্যাস ট্যাবলেট খায়। তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

এদিকে শুক্রবার (১১ জুন) উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের রায়নগর গ্রামের জহুরুল ইসলামের মেয়ে ও রায়নগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী মেহজাবিন খাতুন জেসি (৯) গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এ ছাড়া গত ৬ জুন উপজেলার নিমাইচড়া ইউনিয়নের সমাজ করদকান্দি গ্রামের খায়রুল ইসলামের মেয়ে হাসি খাতুন (১২) গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। সে নিমাইচড়া দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল। এসকল ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে এ উপজেলায় আত্মহত্যার সংখ্যা ছিল ৪৫টি।
অপরদিকে আত্মহত্যা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি বিষয়ক প্রচারণা সভা শুরু করেছে পাবনা জেলা পুলিশ। আত্মহত্যা প্রতিরোধে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে সক্রিয় ভূমিকা পালন করার আহবান জানান হচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!