রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদকর্মীদের প্রচেষ্টায় আটকে রাখা কর্মচারীকে ছেড়ে দিল পাবনা পবিস-১ কর্তৃপক্ষ

বিশেষ প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারের পর সমালোচনা মুখে গত পাঁচ দিন অফিস কক্ষে আটকে রাখা কর্মচারী ফিরোজ মাহমুদকে ছেড়ে দিয়েছে পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১ কর্তৃপক্ষ। শনিবার সন্ধ্যায় চাটমোহর থানা পুলিশের মাধ্যমে তাকে পরিবারের জিম্মায় দেয়া হয়।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শনিবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যম কর্মী ও ভুক্তভোগী পরিবারের নিকট থেকে আমরা পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারী ফিরোজকে আটক রাখার বিষয়ে জানতে পারি। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা মেলায় থানা পুলিশ তাকে পরিবারের জিম্মায় দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিদ্যুৎ বিলের পাঁচ লাখ টাকা হিসেব গরমিলের দায় জোরপূর্বক ঘাড়ে চাপাতে পল্লী বিদ্যুতের এক কর্মচারীকে গত ৫ দিন ধরে অফিসে আটকে রেখে নির্যাতন করছেন পাবনা পবিস ১ কর্তৃপক্ষ। পরিবারের নিকট থেকে এমন অভিযোগ পেয়ে স্বজনদের সাথে নিয়ে পবিস ১ কোয়ার্টার থেকে তাকে খুঁজে বের করেন পাবনা প্রেসক্লাব সম্পাদক, সময় টিভি ও বাংলাদেশ প্রতিদিন প্রতিনিধ সৈকত আফরোজ আসাদ, এটিএন নিউজের পাবনা প্রতিনিধি রিজভী জয়, ক্যামেরা পার্সন মিলন মাহমুদ, ডিবিসি নিউজের পাবনা প্রতিনিধি পার্থ হাসান, ক্যামেরা পার্সন আসিফ জুয়েল ও এশিয়ান টিভির প্রতিনিধি শফিক আল কামাল।

ভুক্তভোগী ফিরোজ জানান, স্ত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায়, অফিস ইনচার্জের ষড়যন্ত্রে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষ। অর্থ আত্মসাতের স্বীকোরোক্তি নিতে ভয়ভীতি দেখিয়ে স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিতে চালানো হয়েছে মানসিক ও শারীরীক নির্যাতন। বছর চারেক আগে সমিতির আওতাভুক্ত দাশুড়িয়া এলাকায় বিদ্যুৎ লাইনে মেরামতের সময় বিদ্যুতায়িত হয়ে আহত হন ফিরোজ। ক্রমেই পঙ্গুত্বের দিকে এগিয়ে গেলেও তার চিকিৎসায় কোন ব্যবস্থাই নেয় নি কর্তৃপক্ষ। এখন উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে চাপিয়ে মিথ্যে অভিযোগে হয়রানি করছে কর্তৃপক্ষ। সংবাদকর্মীরা বিষয়টি গণমাধ্যমে তুলে ধরে আমাকে মুক্ত করেছেন। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।
এমন ঘটনাকে প্রচলিত আইন ও মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লংঘন হিসেবে দেখছেন মানবাধিকারকর্মীরাও। মানবাধিকার আইনজীবী আনোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনার জড়িতদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা দরকার।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!