বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলায় পাবনা ইগলস জয়ী পাবনায় আদালত চত্বর থেকে সাক্ষী অপহরণ, বাধা দেয়ায় লাঞ্ছিত ৩ আইনজীবী চলনবিলে শীত উপেক্ষা করে কৃষকরা বোরো রোপণে ব্যস্ত ঈশ্বরদীতে শিশু হত্যা মামলায় এক আসামির যাবজ্জীবন চলনবিলাঞ্চলে শীতে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ চাটমোহরে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দুধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে নির্বাচনী সংঘাতে এলাকাছাড়া পরিবারের সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে পাবনায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন পাবনায় পদ্মা নদীর বুকে সেই রাস্তা অপসারণ করলো প্রশাসন রূপপুর প্রকল্পে থামছে না চুরি, এবার ক্যাবল চুরি

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অব্যবস্থাপনা করোনা টেস্টে মেয়াদ উত্তীর্ণ কীট ব্যবহার

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ১৫ জুলাই, ২০২১
Pabnamail24

পাবনা সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসে করোনা টেস্টে নানা বিশৃংখলা ও মেয়াদ উত্তীর্ণ টিউব ব্যবহার করা হচ্ছে। আজ ১৫/৭/২০২১ সকালে শহরের জনৈক ব্যক্তি করোনা টেস্ট করাতে গিয়ে নানাবিধ অব্যবস্থাপনা ও বিশৃংখল পরিবেশ স্যাম্পল সংগ্রহ করতে দেখে হতবাক হয়ে যায়।

টাউন হল সংলগ্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০টায় গিয়ে ১০০ টাকা জমা দিলে সেখান থেকে ১টি কাচের টিউব হাতে ধরিয়ে দিয়ে বায়বাহাদুর গেটে স্যাম্পল দেয়ার জন্য পাঠিয়ে দেন। সকাল ১০ঃ৩০ মিনিট পর্যন্ত সেখানে সংশ্লিষ্ট কাউকে পাওয়া যায়নি।

পরে একজন পুরুষ ও একজন মহিলা কর্মী এসে কোনরুপ সিরিয়াল মেইনটেন না করে এলোমেলো ভাবে কাজ শুরু করেন। করোনা রোগীদের জন্য কোনরুপ নিরাপদ দুরত্ব মানা হচ্ছ না। গাদাগাদি ঠেলাঠেলি করে করোনা স্যাম্পল কালেকশন করতে দেখা গেছে।

করোনা নমুনা সংগ্রহের টিউব এর গায়ে মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ লেখা আছে জুন ২০২১। সেই টিউব দিয়েই চলচে করোনা টেস্ট। অপরূিকে নাকের ভিতরে যে কটনবার দিয়ে স্যাম্পল কালেকচন করা হয় সেখানেই নেই কোন সর্তকতা। প্যাকেট ছিড়ে এলোমেলো ভাবে টেবিলের উপর অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে অসর্তকতায় কটন বার ব্যবহার করছে। ফলে করোনা নেগেটিভ পজিভিট একাকার হয়ে সংক্রমন হার বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

মেয়াদ উত্তীর্ণ টিউব এর ব্যাপারে জানতে চাইলে স্যাম্পল সংগ্রহকারীরা জানায়, সরকার এভাবেই সরবরাহ করেছে। ভিতরে মেয়াদ ঠিক আছে। পুনরায় জিজ্ঞাসা করায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন এবং এ বিষয়ে জানতে হলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কাছে যেতে বলেন।

স্যাম্পল কালেকশনে নেই কোন বুথ, নেই কোন বসার ব্যবস্থা। সেবা প্রত্যাশী মানুষ সিড়িতে বসে বা দাড়িয়ে সময় পার করছে। কোনরুপ সিরিয়াল মেইনটেইন করছে না। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসন ও সিভিল সার্জনের সদয় দৃষ্টি প্রত্যাশা ভুক্তভোগীদের।

এ বিষয়ে পাবনার সিভিল সার্জন ডাঃ মনিসর চৌধুরী বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি, মুলত টেষ্ট টিউবের কোন মেয়াদ হয়না। এটাতে মেয়াদ দেয়া আছে, বিষয়টি আমি বুঝতে পারছি না। তবে খোঁজ নিয়ে দেখছি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!