বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:৫২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করলেন প্রক্টর মো. কামাল হোসেন পাবনা হাসপাতালে দালালের বিরুদ্ধে নার্সকে মারধরের অভিযোগে কর্মবিরতি বাউয়েট আইন অনুষদের তিন সদস্য বিশিষ্ট টিমের দিল্লি ল’ কনফারেন্সে অংশগ্রহন। মুক্তিতে বাধা নেই সাবেক এমপি সেলিম রেজা হাবিবের দুলাই আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসীন্দাদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের কম্বল বিতরণ কাশীনাথপুরে ক্যাডেট কলেজের নামে প্রতারণা! মালঞ্চি ইউনিয়ন, জমির ভুয়া মালিকানায় রাস্তা নির্মাণে বাধা দেয়ার অভিযোগ বেড়ায় পুলিশের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে আসামি ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ ধর্ষণ মামলায় পাবনার সাবেক এমপি আরজুর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সাথে মানবাধিকার কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য সেলিম রেজা

পাবনায় চাঁদাবাজি মামলায় সাবেক যুবলীগ নেতা গ্রেফতার, জেল হাজতে প্রেরণ

পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডেস্ক
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২৩
Pabnamail24

চাঁদাবাজি মামলায় পাবনা জেলা যুবলীগের অব্যহতি প্রাপ্ত যুগ্ম আহ্বায়ক সাকিরুল ইসলাম রনিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে শহরের জুবিলী ট্যাংকের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কৃপা সিন্ধু বালা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, পৌর এলাকার শিবরামপুর মহল্লার মোঃ সোহেল আহমেদের সাথে জমি জমা নিয়ে যুবলীগ নেতা রনির পূর্ব বিরোধ চলছিলো। এ নিয়ে আদালতে মামলাও চলছে। এরপরেও রনি বিভিন্ন সময় ঐ জমি নিজের দাবি করে চাঁদা দাবি করে বলে অভিযোগ সোহেল আহমেদের। গত ০৯ জানুয়ারি সোহেল আহমেদের স্বজনেরা ঐ জমিতে সাইনবোর্ড লাগালে, ১০ জানুয়ারি সকালে রনি অজ্ঞাত নামা কয়েকজনকে সাথে নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে পঞ্চাশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে সাইনবোর্ড ভেঙে দেয়। এ সময় বাদী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাধা দিলে প্রাণ নাশের ভয় দেখিয়ে রনি ও তার লোকজন চলে যায় বলে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। গত ১০ জানুয়ারি বাদীর অভিযোগ মামলা হিসেবে থানায় নথিভুক্ত হয়।
মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশ জুবিলী ট্যাংক এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাকিরুল ইসলাম রনিকে গ্রেফতার করে। পরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে বিজ্ঞ আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
মামলার বাদী মো. সোহেল আহম্মেদ বলেন, ‘শেখ রনি ভুয়া কাগজ তৈরি করে আমাদের জমি দখল করার চেষ্টা করছিলেন। আমরা জমির ওপর মালিকানার সাইন বোর্ড দিলে ক্ষিপ্ত হন এবং সাইন বোর্ড ভাঙচুর করে ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এ সময় নানা হুমকি-ধমকিও দেন।’

এ বিষয়ে পাবনা জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শিবলী সাদিক জানান, সাকিরুল ইসলাম রনি এর আগেও এ ধরণের কান্ড ঘটিয়েছেন। অভিযোগের তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় যুবলীগ গত বছর তাকে পদ থেকে অব্যহতি দিয়েছে। তার ব্যক্তিগত অপরাধের সাথে জেলা যুবলীগের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!