শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টে নিমফুল রিফাত সৃতি সংঘের ২ উইকেটে জয় পাবিপ্রবি ভিসির বিরুদ্ধে নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ, গনিত বিভাগের চেয়ারম্যান লাঞ্ছিত সাঁথিয়ায় দেবরের ঘরে ভাবির বিয়ের দাবিতে আমরণ অনশন আব্দুল্লাহ-গালিব সৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলায় পাবনা ইগলস জয়ী পাবনায় আদালত চত্বর থেকে সাক্ষী অপহরণ, বাধা দেয়ায় লাঞ্ছিত ৩ আইনজীবী চলনবিলে শীত উপেক্ষা করে কৃষকরা বোরো রোপণে ব্যস্ত ঈশ্বরদীতে শিশু হত্যা মামলায় এক আসামির যাবজ্জীবন চলনবিলাঞ্চলে শীতে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ চাটমোহরে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দুধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে নির্বাচনী সংঘাতে এলাকাছাড়া পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

ঈশ্বরদীতে গৃহবধুকে কুপিয়ে হত্যা, অভিযুক্ত আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১
Pabnamail24

পাবনার ঈশ্বরদীতে শারমীন শিলা (৩২) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন গৃহবধূর স্বামী। ঘটনার পরপর আহত হামলাকারীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল ৬টার দিকে উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মুনশিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শারমীন শিলা ওই গ্রামের রানাউর রহমানের স্ত্রী। আটক অভিযুক্ত সুমন আলী (৩০) একউ উপজেলার সরাইকান্দি গ্রামের আজগর আলীর ছেলে।

ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির বলেন, তিনতলা বাড়ির তৃতীয়তলায় থাকতেন তারা। গৃহবধূ শারমীন শিলা সাংসারিক কাজ করছিলেন। স্বামী ঘুমিয়ে ছিলেন। তার শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী হাঁটতে বের হয়েছিলেন। বাড়ির প্রধান দরজা খেলা ছিল। এ সময় অভিযুক্ত সুমন বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূ শারমীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী কোপাতে থাকে। চিৎকারে স্বামী রানাউর রহমান স্ত্রীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে তাকেও আঘাত করে হামলাকারী। তার সাথে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে হামলাকারী সুমনকে তিনতলা বাড়ির ছাদ থেকে নিচে ফেলে দেন রানাউর রহমান। পরে এলাকাবাসী তাকে আহত অবস্থায় আটক করে পুলিশে খবর দেয়। এর মধ্যে ঘটনাস্থলেই মারা যান গৃহবধূ।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত সুমনকে আটক ও গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। আহত স্বামী রানাউর রহমানকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর আহত অভিযুক্ত সুমনকে পুলিশি পাহাড়ায় ঈশ^রদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির বলেন, হত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পূর্ব কোনো শত্রুতার কারণে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। তারপরও বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!