সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আ.লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য হলেন প্রিন্স এমপি শফিক ফিড মিলস্ লি: ডিলার কনফারেন্স অনুষ্ঠিত সুচিত্রা সেনের অষ্টম প্রয়ান দিবস উপলক্ষে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত পাবনায় সাংবাদিকের বাড়ি-ঘরে হামলা ভাংচুর ও প্রাণনাশের হুমকি সুজানগর পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর বাড়িতে হামলা ও প্রচারণায় বাধার অভিযোগ সাঁথিয়ায় জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহতের ঘটনা পরিকল্পিত, গ্রেফতার ১ চাটমোহরে দুই সিএনজি সংঘর্ষে পথচারী বৃদ্ধ নিহত ভোটে জিতেই খুন হলেন বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর ঈশ্বরদী পৌরসভায় আ.লীগ প্রার্থী ইসাহাক আলী মালিথা নির্বাচিত সাঁথিয়া পৌরসভায় আ.লীগ প্রার্থী মাহবুবুল আলম বাচ্চু নির্বাচিত

গেট খোলা রেখে ঝুুঁকিতেই দুটি ট্রেন পার করলেন নারী গেটকিপার

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত রবিবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২০
Pabnamail24

মর্মান্তিক ট্রেন দূর্ঘটনার একদিন না পেড়োতেই বড় দূর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেলেন শতাধিক বড় ছোট যানবাহন। পাবনার ঈশ্বরদী শহরের রেলগেট লেবেল ক্রসিং গেট খোলা রেখে ঝুুঁকিতেই দুটি আন্ত:নগর ট্রেন পার করলেন (অস্থায়ী) দুই নারী গেটকিপার।

দক্ষ অসচেতন, রেলওয়ে গেটকিপার হওয়ার কারণে গেটের বেরিয়ার ভেঙে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। এতে বিকল হয়ে যায় ইন্টারলকিং সুইচটি। পরে পুলিশ সচেতন মানুষের সহায়তা নিয়ে লোকজনকে সহায়তায় রেলগেট খোলা রেখে ঝুঁকিতে পার হয় দুটি আন্তঃনগর যাত্রীবাহী ট্রেন। এদিকে দীর্ঘসময় যানজট সৃষ্টি হলে খবর পেয়ে রেলওয়ে কর্মচারীরা উপস্থিত হয়ে ইন্টারলকিং সুইচটি মেরামত করতে আসে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রেলওয়ে বেরিয়ার ছাড়া ট্রেন চলাচল করছে।

রোববার (২০ ডিসেম্বর) দুপুর আনুমানিক সোয়া দুইটার দিকে ঈশ্বরদী-খুলনা রেল রুটের’ঈশ্বরদী রেলগেট লেবেল ক্রসিং গেটে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ঈশ্বরদী জংশন স্টেশন থেকে কোন যাত্রীবাহী ট্রেন ছাড়া এবং প্রবেশের ১০ মিনিট পূর্বেই ঈশ্বরদী শহরের ব্যস্ততম সড়কের রেলওয়ের লেবেল ক্রসিং গেটটি বন্ধ করার নিয়ম রয়েছে।

রোববার (২০ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া দুইটার দিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী ৭২৬ নাম্বার সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঈশ্বরদী স্টেশন ত্যাগ করে রেলওয়ে লেবেল ক্রসিং গেটের সীমানায় চলে আসে। দায়িত্বে ছিলেন দুই অস্থায়ী নারী গেটকিপার। জংশন স্টেশন থেকে ট্রেনটি ছেড়ে আসতে দেখে তাড়াহুড়ো করে গেট বন্ধ করার চেস্টা করে। তাৎক্ষণিক রেলগেটের দুই পাশে থাকা ‘বেরিয়ার’ ভেঙে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। বিকল হয়ে যায় ইন্টারলকিং সুইচ। বেশ যানজটও সৃষ্টি হয়। ট্রেন দ্রুত গতিতে এগিয়ে আসে। আশেপাশের সচেতন লোকজন এগিয়ে আসেন। আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটির সচেতন চালক গেটের কাছে এসে গতি কমিয়ে ফেলে। এতে কিছুটা সময় ট্রেনটি বিলম্ব হয়। পরে রেলগেট খোলা রেখে ঝুঁকিতে পার হয় দুটি যাত্রীবাহী ট্রেন। রক্ষা পায় শতাধিক ছোট বড় যানবাহন। গেটের বেরিয়ার মেরামতের জন্য নিয়ে যাওয়ার কারণে ‘গেটবিহীন’ চলছে ট্রেন।

ঈশ্বরদীর রেলগেটের মত জায়গাতে সচেতন ও দক্ষ গেটকিপার থাকা প্রয়োজন। কয়েকদিনই প্রায় ট্রেন চলাচলের সময় দূর্ঘটনা ঘটছে। যোগদানের পর হতে প্রায়ই দায়িত্বে অবহেলা করছেন তারা। সারাক্ষণ মোবাইল হাতে নিয়ে ব্যাস্ত থাকেন। এ বিষয়ে কেউ কথা বললে ‘ চড়াও’ হয়। নারী হওয়ার কারণে ভয়ে কেউ কথা বলতে চাই না।

শহরের রেলগেটে থাকা একাধিক দোকানিদার জানান, ঈশ্বরদী রেলওয়ে লেবেল ক্রসিং গেটে দায়িত্বে থাকা নারী গেটকিপারের সাথে কথা বলতে চাইলে তারা জানান, চাকুরী করতে এসেছি! কী করে ডিউটি করতে হয়! ট্রেনিং করে দায়িত্ব পালন করছি। কারো থেকে শুনে চাকুরী করব না। এসময় নাম জানতে চাইলে নাম বলেননি।

ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ট্রাফিক সাব ইন্সপেক্টর খাইরুল আলম জানান, ঈশ্বরদীর রেলগেট শহরের একটি ব্যস্ততম জায়গা। যখন গেট বন্ধ হয় দুইপাশে চরম যানজট সৃষ্টি হয়। সারাদিনে অন্ততপক্ষে ১৫/২০ টি ট্রেন যাতায়াত করে। ট্রেন আসার সিগন্যাল পেলে সরাসরি গেট বন্ধ করে দিলে আর কোন সমস্যা হতো না। দুই একটি গাড়ি পার করতে গিয়ে এ সমস্যা সৃষ্টি। গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। দক্ষ কোন গেটকিপার দিলে ভালো হয়।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশি বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আব্দুর রহিম জানান, তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে রেলওয়ের দায়িত্বরত কর্মচারী গেটের বেরিয়ারটি মেরামত করার চেষ্টা করছে। তারা মুলত: প্রকল্পের অস্থায়ী গেটকিপার। তবে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখে ব্যবস্থা গ্রহন করব।এছাড়া

পাকশি রেলওয়ে বিভাগে গেটকিপার সংকট রয়েছে। তাই অনেক লেবেল ক্রসিং গেটে অস্থায়ী গেটকিপার দিয়ে দায়িত্ব পালন করা হয়।

পাকশি বিভাগীয় রেলওয়ের ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) শাহীদূল ইসলাম জানান, শহরের রেলগেটটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। এই স্হানে দক্ষ ও সচেতন কোন গেটকিপার রাখা যায় কিনা? বিষয়টি রেলওয়ের ঊদ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহন করব।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!