শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৫:২৪ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টা , ১৭ হাজার টাকায় আপোষ রফা!

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০২০
Pabnamail24

ঈশ্বরদীতে চকলেট দেওয়ার কথা বলে ৫ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টা করেছে বাবুল হোসেন ওরফে বাবুলা (৪২) নামের এক ব্যক্তি। ঘটনার পর থেকেই বাবুল হোসেন ওরফে বাবুলা পলাতক রয়েছে।

সোমবার (১১ আগস্ট) বিকেলে ঈশ্বরদী শহরের শেরশাহ্ রোডস্থ প্রামানিক পাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি জানাজানি হলে মাত্র ১৭ হাজার টাকায় ঘটনাটি আপোষ রফা করা হয়।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, সোমবার বিকেলে ওই এলাকার জিন্নাহ্ প্রামানিকের বাড়ির ভাড়াটিয়া শিবলী প্রামানিক এর শিশু কন্যা লামিয়া খাতুন (৫) বাড়ির সামনে খেলা করছিল।সেই সময় একই এলাকার দুদু প্রামানিকের বাড়ির ভাড়াটিয়া বাবুল হোসেন ওরফে বাবুলা ওই শিশুকে চকলেট দেওয়ার কথা বলে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ের শিশুটিকে তার ঘরে নিয়ে বিবস্ত্র করে ধর্ষনের চেষ্টা করে। সে সময় শিশুটির আত্মচিৎকারে লম্পট বাবুল তাকে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে শিশুটি কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে গিয়ে ঘটনাটি তার মাকে জানায়। শিশুটির মা ঘটনা শুনেই বাবুলের বাড়িতে যায় । বিষয়টি আঁচ করতে পেরে কৌশলে পালিয়ে যায় বাবুল। ঘটনাটি জানাজানি হয়ে গেলে স্থানীয় এলাকার লোকজন বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে। রাতেই স্থানীয় প্রভাবশালীদের প্রচন্ড চাপ আর মধ্যস্থ্যতায় মাত্র ১৭ হাজার টাকায় এই ঘটনাটির আপোষ রফা করা হয়।

শিশু মেয়েটির বাবা শিবলী প্রামানিক মঙ্গলবার অভিযোগ করেন, তিনি ভাড়াটিয়া হওয়ায় স্থানীয় প্রভাবশালীদে রচাপে মিমাংসা করতে বাধ্য হয়েছেন। অভিযুক্ত বাবুলের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।তবে তার স্ত্রী বেলি বেগম ১৭ হাজার টাকায় মিমাংসার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফিরোজ কবীর জানান, ঘটনাটি তিনি জেনেছেন।লিখিত অভিযোগ না পাওয়ায় আইনগত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করাযাচ্ছে না। লিখিত অভিযোগ পেলেই তিনি আইনগত পদক্ষেপগ্রহণ করবেন বলে জানান।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!