মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা উজ্জ্বলের বক্তব্যের প্রতিবাদে সুজানগরে মানববন্ধন শুরু হয়েছে দূর্গাপূজা, আজ মহা সপ্তমী পাবনায় ব্যবসায়ীকে গুলি করে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক তোয়াব খানের মৃত্যুতে পাবনা প্রেসক্লাবের শোক পাবনার হেমায়েতপুর ও মালিগাছায় আওয়ামীলীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত শ্রদ্ধা ভালোবাসায় সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের শেষকৃত্য সম্পন্ন পাবনায় শারদীয় দুর্গোৎসব উপেলক্ষ্যে মর্জিনা লতিফ ট্রাস্টের বস্ত্র বিতরণ একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের শেষকৃত্য সম্পন্ন পাবনায় ভাইয়ের দায়ের কোপে প্রাণ গেল ইসলামী আন্দোলনের নেতার ঈশ্বরদীতে গৃহবধূকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

ঈশ্বরদীরতে জমি নিয়ে বিরোধে লুটপাট, অগ্নি সংযোগের পর প্রতিপক্ষের বাড়ি গুঁড়িয়ে দিলো সন্ত্রাসীরা

পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডেস্ক
  • প্রকাশিত সোমবার, ১৪ মার্চ, ২০২২
Pabnamail24

পাবনার ঈশ্বরদীরতে জমিজমা নিয়ে বিরোধে দিনে দুপুরে হামলা করে লুটপাট ও এস্কেভেটর দিয়ে কয়েকটি বাড়ি গুঁড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গত শনিবার দুপুরে ঈশ^রদী পৌর এলাকার ভুতেরগাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ জমা দিলেও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।
ভুক্তভোগী তজির উদ্দিন মোল্লা জানান, জমিজমা নিয়ে প্রতিবেশী আরশেদ মিয়ার সাথে তার পরিবারের দীর্ঘদিনের বিরোধ চলছে। এ নিয়ে আদালতেও মামলা বিচারাধীন। মামলা নিষ্পত্তি হবার আগেই আরশেদ মিয়া জমি ছেড়ে দিতে নানাভাবে হুমকী ও ভয়ভীতি দেখাচ্ছিলেন। এরপরও জমি না ছাড়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে আশিক, তিতুমীর, তৌফিকসহ ২০ থেকে ২৫ জন ভাড়াটে সন্ত্রাসী আমার বাড়িতে ধারলো অস্ত্র, রড, লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করে। তারা বাড়ির পুরুষ ও নারী সদস্যদের মারপিট করে লুটপাট চালায়। একই সাথে আমার ভাই মজির উদ্দিন মোল্লার বাড়িতে হামলা করে আগুন ধরিয়ে দেয়। একপর্যায়ে এক্সেভেটর দিয়ে আমাদের তিন ভাইয়ের বাড়িসহ ৬টি বাড়ি গুঁড়িয়ে দেয়।
ভুক্তভোগীরা আরও জানান, হামলা নির্যাতন করেও জমি থেকে উচ্ছেদ করতে না পেরে হত্যার হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা। নিরপত্তা চেয়ে থানায়ও আবেদন করেছেন তারা।
মারপিটের শিকার হওয়া জুঁই, সহিদা বেগম, হাসিনা খাতুন বলেন, শনিবার দুপুরের রান্নার জন্য আমারা তরকারি কাটছিলাম। এসময় হঠাৎ সন্ত্রাসীদের দল বাড়িতে এসে ভাঙচুর লুটপাট শুরু করে। আমি বাধা দিলে আমার কোলের সন্তানকে ফেলে দিয়ে তারা মারতে শুরু করে।
হাসিনা বেগম বলেন, আমরা দরিদ্র পরিবারের মানুষ । অনেক কষ্ট করে ঘরবাড়ি তৈরি করেছি। সেই বাড়ি চোখের সামনে ভেঙে আগুন জ¦ালিয়ে দিলো। এখন মেরে ফেলার ভয় দেখাচ্ছে। থানায় অভিযোগ দেয়ার পরেও ব্যবস্থা নিচ্ছে না পুলিশ।
তবে, হামলার ঘটনা সত্য নয় বলে দাবি করেছেন, অভিযুক্ত আশিক ও তিতুমীর। তারা বলেন, তজির উদ্দিন ও তার ভায়েরা জোরপূর্বক আমাদের জমি দখল করে রেখেছে। আদালতের মামলা নিষ্পত্তির পরেও তারা সময়ক্ষেপনের জন্য একের পর এক মামলা করেছে। এরপরেও আমলা ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়েছি। কিন্তু তারা সহানুভূতি পাওয়ার জন্য মিথ্যা নাটক সাজিয়েছে।
তজির উদ্দিনের পরিবারের লোকজন সন্ত্রাসের সাথে জড়িত । তাদের ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীদের সাথে মারামারি হয়েছে।
ঈশ^রদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান জানান, বিরোধপূর্ণ জমিটি নিয়ে আদালতে মামলা বিচারাধীন। মামলা নিষ্পত্তির আগেই কয়েক দফায় জমি দখল, পাল্টা দখলের চেষ্টা করেছে বিবাদমান পক্ষ গুলো। হামলার ঘটনার পর ঐ জমিতে ১৫৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আমরা আদালতে বিচারাধীন বিষয়টির শান্তিপূর্ণ মীমাংসার চেষ্টা করছি। এরপরেও তারা বিশৃংখলা করলে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!