বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :

ঈশ্বরদীতে দুই শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২৩

নিজ বাড়ির শয়নকক্ষ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় দুই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩০ অক্টোবর) সকালে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ও পাকশী ইউনিয়নের পৃথকভাবে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়।

দুই শিক্ষার্থী হলো, উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের সুলতানপুর মধ্যপাড়ার বাসিন্দা কৃষক আমিরুল ইসলামের ১৫ বছরের ছেলে শহীদ মাল ও পাকশী ইউনিয়নের দিয়াড় বাঘইল গ্রামের ইয়াছিন আলীর ১৬ বছরের কন্যা সুমনা সুলতানা। সুমনা ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্রী ও শহীদ মাল দাশুড়িয়ার দরগাবাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র।

ঈশ^রদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অরবিন্দ সরকার স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, রবিবার দিবাগত রাতের কোন এক সময়ে দাশুড়িয়া সুলতানপুর মধ্যপাড়ায় নিজ শয়ন কক্ষে স্কুলছাত্র শহীদ মালের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ সোমবার সকাল ৯টার দিকে শহীদের নিজ বাড়ির শয়নকক্ষের বাঁশের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তার পরিবারের দাবি মোবাইল কিনে না দেওয়ার কারণে সে আত্মহত্যা করেছে। তবে মরদেহের ময়না তদন্তের পর বিষয়টি স্পষ্ট হওয়া যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

অপরদিকে একই দিন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাকশী দিয়াড় বাঘইল গ্রামে নিজ বাড়ির শয়নকক্ষ থেকে একই কায়দায় ঝুলন্ত অবস্থায় কলেজ ছাত্রী সুমনার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়। রবিবার গভীর রাতে সুমনা গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করছেন তার পরিবার।

খবর পেয়ে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ সুমনার বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার করে, তবে তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে মারা যাওয়া কারণ এখনও স্পষ্ট হওয়া যায়নি বলে পুলিশের দাবী। ময়না তদন্ত ছাড়া কিছুই বলা যাচ্ছে না। পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করে মরদেহের ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় পৃথক দুটি ইউডি মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান ওসি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..