শনিবার, ২১ মে ২০২২, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় সুজানগরে ছাত্রীকে পিটিয়ে জখম, সহপাঠিদের প্রতিবাদ সুজানগরে সরকারি কালভার্ট ভেঙে নির্মাণ সামগ্রী লুট, তদন্ত কমিটি এমপি পুত্রের স্লিপ অব টাং! হাসপাতোলে অনিয়মের প্রতিবাদ করায় রোগীকে হুমকির অভিযোগ পামেক ছাত্রলীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে জনশুমারি, পাবনায় আগামী ১৫ থেকে ২১ জুন অনুষ্ঠিত হবে রাধানগর অবৈধ ভাবে ভোজ্য তেল মজুদ, জরিমানা আদায় বেড়া-সাঁথিযায় আধা পাকা ধান নিয়ে কৃষকের যুদ্ধ,পানিতে নষ্ট হচ্ছে পাট বেড়ার চরে গো-খামারে ভাগ্যবদল রেলমন্ত্রীর আত্মীয় কান্ডে তদন্তে টিটিই শফিকুল নির্দোষ প্রমাণিত সাঁথিয়ায় মৃত গরুর মাংশ বিক্রয় করায় কসাইকে ১বছরের কারাদন্ড

সরকারী রাস্তায় বাঁশের বেড়া দিয়ে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা, শতাধিক পরিবারের

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ, ২০২২
Pabnamail24

পাবনার আমিনপুর গ্রামে চলাচলের সরকারী রাস্তা বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে নির্বাচিত ইউপি সদস্যর ভাতিজার বিরুদ্ধে। এতে শতাধিক পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী সরকারী সম্পত্তি দখল করতেই রাস্তাটি বন্ধ করেছে বলে অভিযোগ অবরুদ্ধ পরিবারগুলোর। রাস্তা বন্ধের ঘটনাটি পাবনার বেড়া উপজেলার জাতসাকিনী ইউনিয়নের আমিনপুর গ্রামে ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার সরেজমিনে দেখা যায়, চলাচলের জন্য একটি মাটির রাস্তায় উপজেলা পরিষদের বরাদ্দে মাটির কাজ চলছে, ঠিক সেখানেই বাঁশ দিয়ে বেড়া নির্মাণ করে রাস্তাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এতে পুরো রাস্তাটি বন্ধ হয়ে গেছে।

ভুক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পুরো রাস্তাটির দৈর্ঘ্য অর্ধ কিলোমিটার ও প্রস্থে ১৫ ফিট। প্রায় ৪৫ বছর ধরে ওই সব পরিবার রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করত। গত বুধবার বেড়া উপজেলা পরিষদের বরাদ্দকৃত টাকায় মাটির কাজ শুরু হলে বৃহস্পতিবার হঠাৎ ওই এলাকার আলহাজ¦ দলবল নিয়ে এসে রাস্তায় বাঁশ দিয়ে বেড়া দিয়ে চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে দেন। এ সময় বসবাসরত পরিবারগুলো বাধা দিতে গেলে ভয়ভীতি দেখান। বিকল্প কোনো রাস্তা না থাকায় শতাধিক পরিবারের সদস্যরা বেকায়দায় পড়েছেন।

অবরুদ্ধ পরিবারের সদস্যরা জানান, এখানে বসবাসরত পরিবারের সদস্যরা সবাই শান্তিপ্রিয় ও কর্মজীবী মানুষ। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। যে ব্যক্তি (আলহাজ¦) রাস্তাটি বন্ধ করেছেন, তিনি একজন স্থানীয় প্রভাবশালী ও মাদক ব্যবসায়ী। আমরা ৪০ থেকে ৪৫ বছর ধরে ওই রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করছি। হঠাৎ করে আলহাজ¦ অন্যের হয়ে এসে রাস্তাটি বন্ধ করে দেন। তিনি জাতসাকিনী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য কালাম ম্বেবরের ভাতিজা ও খাস আমিনপুর গ্রামের মোস্ত মন্ডলের ছেলে। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় থানা পুলিশও অবহিত। কালাম মেম্বরের ইন্ধনে তার ভাতিজা এমন কাজকর্ম করছেন বলেও দাবী তাদের।
তারা আরো জানান, এই রাস্তার মাথায় এক সময়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের ইটভাটা ছিল, সেখান থেকে ট্রাক যোগে ইট আনা নেয়া করতেই সড়কও জনপথ বিভাগ এই রাস্তাটি তৈরী করেন। এখন স্থানীয় অসাধূ কিছু লোকজন সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা ও রাস্তা দখলে নিতেই এই কাজ করেছেন বলেও জানান তারা।

বেড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শায়লা শারমিন ইতি বলেন, সরকারী রাস্তা জেনেই উপজেলা পরিষদ থেকে বরাদ্দ প্রদান করা হয়। সেখানে কাজ করতে গিয়ে একজন নিজের দাবী করে বাঁশ দিয়ে বেড়া দিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিটক স্থানীয় গ্রামবাসীও আবেদন দিয়েছেন, দেখা যাক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্যার কি করেন। আমি নিজেও জানি এবং ম্যাপও (নকশা) দেখেছি সেখানে সরকারী রাস্তা আছে। কেউ যদি ভূয়া কাগজপত্র তৈরী করে থাকেন বিষয়টি যাচাই বাছাই করলেই পরিষ্কার হওয়া যাবে।

আলহাজ¦ মন্ডল বলেন, স্থানীয় ভাবে বসে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। আমরা থানাতেও অভিযোগ দিয়েছি। তবে তিনি বাশ দিয়ে বেড়া দেন নাই দাবী করে বলেন, যার জায়গা সে বেড়া দিয়েছেন, রবিউলের জায়গা সে বেড়া দিয়েছেন বলে রেখে দেন।
কালাম মন্ডল বলেন, আমার সাথে দেখা করেন, ফোনে কোন কথা হবে না। ওই দিক দিয়ে ট্রাক চলাচল করতো, রাস্তা আছে কিনা আমি জানি না। আমার ভাতিজা কি করলো সেটা আমার দেখার নেই, বিষয়টি ভাতিজার ব্যাপার।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সুজানগর সার্কেল) রবিউল ইসলাম বলেন, বিষয়টি নিয়ে আশি খোজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করছি। আইন শৃংখলা পরিস্থিতি যেন স্বাভাবিক থাকে সেটা নিয়ে কাজ করছি।

বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সবুর আলী বলেন, বিষয়টি আমি বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শুনেছি, খোজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!