সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১২:১৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাবিপ্রবি’র অর্থনীতি বিভাগের যুগপূতি পাবনায় দুইদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু পাবনায় পুলিশের বন্ধু বঙ্গবন্ধু গ্যালারীর উদ্বোধন শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদে পাবনায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এবার জাল দলিলসহ ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করে ৫২ বিঘা জমি দখলের অপচেষ্টা! পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমানের জন্মদিন পালন পাবিপ্রবির কর্মচারী পরিষদের ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ রূপপুর এনপিপিঃ দ্বিতীয় ইউনিটের অভ্যন্তরীণ কন্টেইনমেন্টে ডোম স্থাপন সম্পন্ন ভালো কাজের আনন্দ খুবই তৃপ্তির-পাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন ভাঙ্গুড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশন সম্পাদকের বিরুদ্ধে অবৈধ কমিটি গঠনের অভিযোগ প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত রবিবার, ২২ মে, ২০২২
Pabnamail24

গঠনতন্ত্র অমান্য করে অনিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশনের সম্মেলন ও কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে। রবিবার পাবনার টেবুনিয়া সিড গোডাউন এলাকায় নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে,নবগঠিত কমিটি অবৈধ এবং আগের কমিটি বহাল রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জয়নুল আবেদীন।
লিখিত বক্তব্যে জয়নুল আবেদীন জানান, জাতীয় নির্বাহী পরিষদের অধিকাংশ সদস্যকে না জানিয়ে, শ্রমিক প্রতিনিধিদের উপস্থিতি ছাড়াই একক স্বেচ্ছাচারিতায় গত ১৪ মে ঢাকায় সম্মেলন আয়োজন করে নিজেকে সভাপতি ঘোষণা করেছেন ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক আব্দুল মজিদ। নির্বাহী পরিষদের অনুমোদন ছাড়া সম্মেলন আয়োজনের সুযোগ নেই, এক্ষেত্রে সভাপতিরও অনুমতি নেয়া হয়নি। এমনকি ভুল বুঝিয়ে সম্মেলনে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাককেও অতিথি করে নিয়ে আসেন সাধারন সম্পাদক আব্দুল মজিদ।
কৃষি শ্রমিক নেতা জয়নাল আবেদীন বলেন, কৃষি শ্রমিকদের ন্যায্য পাওনা ও অধিকার আদায়ে ১৯৭৭ সালে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের কৃষি শ্রমিকদের নিয়ে বাংলাদেশ কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশন গঠন করেন তিনি। প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন জয়নুল আবেদীন। কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশনের আন্দোলনের কারণেই কৃষি শ্রমিকদের সামাজিক স্বীকৃতি ও নায্য মজুরি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।
তবে, আব্দুল মজিদ ২০১১ সালে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েই নানা অনিয়ম ও দূর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন। সংগঠনের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি, অসাধু সিন্ডিকেট করে ও প্রভাব খাটিয়ে টেন্ডারবাজিসহ কোটি কোটি টাকার সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। বার বার বলার পরেও গত ১২ বছরে ফেডারেশনের একটিও আর্থিক প্রতিবেদন তিনি দাখিল করেন নি।
জয়নাল আবেদিন অভিযোগ করেন, আব্দুল মজিদ ওয়াকার্স পার্টির নেতা হওয়ায় ফেডারেশনের নাম ব্যবহার করে নিজ দলের লোকজন নিয়ে গত ১৪ মে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনিস্টিটিউটে সম্মেলন আয়োজন করে নিজেকে সভাপতি ও গোলাম সারোয়ার কে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেছেন। জাতীয় নির্বাহী পরিষদের সভাপতি ও ২৩ সদস্যের ২১ জন সদস্যই এ সম্মেলনের বিষয়ে কিছুই জানেন না। এমনকি শ্রমিক প্রতিনিধিরাও এ সম্মেলনে অংশ নেননি। কাজেই ১৪ মে অনুষ্ঠিত সম্মেলন ও গঠিত কমিটি সম্পূর্ণ অবৈধ। এ বিষয়ে শ্রম অধিদপ্তরেও লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে।
একই সাথে ফেডারেশনের অন্তর্ভূক্ত সকল ইউনিয়ন ও শ্রমিক সমিতির নেতৃবৃন্দকে অবৈধ কমিটি প্রত্যাখান ও সহযোগিতা বিরত থাকারও আহ্বান জানান জয়নুল আবেদীন।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পূর্বের কমিটির সহ সভাপতি আব্দুল গফুর, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হামিদ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক লালন, প্রচার সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুলসহ কৃষি শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
তবে, গঠনতন্ত্র মেনেই সম্মেলন ও নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন আব্দুল মজিদ। তিনি বলেন, সভাপতি জয়নুল আবেদীন বয়োবৃদ্ধ ও পক্ষাঘাত রোগে আক্রান্ত। সভাপতির অসুস্থতার কারণে সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছিল। তাকে জানিয়ে এবং সম্মতি নিয়েই সম্মেলন করা হয়েছে। ফেডারেশনের কোন তহবিল নেই এ কারণে আর্থিক প্রতিবেদন দেয়া হয়নি।
সম্মেলনে সভাপতি শারীরীক অসুস্থতার কারণে উপস্থিত হতে না পারায় তার দুই ছেলেকে পাঠিয়েছিলেন। কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের সম্মতি নিয়েই সম্মেলন ও নতুন কমিটি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!