বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০১:১৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাবনায় পোষা প্রাণীদের বিনামুল্যে চিকিৎসা দিলো বন্ধুসভা এনটিভি দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় চ্যানেল-সাহাবুদ্দিন চুপ্পু পাবিপ্রবি’র অর্থনীতি বিভাগের যুগপূতি পাবনায় দুইদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু পাবনায় পুলিশের বন্ধু বঙ্গবন্ধু গ্যালারীর উদ্বোধন শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদে পাবনায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত এবার জাল দলিলসহ ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করে ৫২ বিঘা জমি দখলের অপচেষ্টা! পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমানের জন্মদিন পালন পাবিপ্রবির কর্মচারী পরিষদের ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ রূপপুর এনপিপিঃ দ্বিতীয় ইউনিটের অভ্যন্তরীণ কন্টেইনমেন্টে ডোম স্থাপন সম্পন্ন

নারীকে মারধরের ঘটনায় থানায় মামলা না নেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত শুক্রবার, ১০ জুন, ২০২২
Pabnamail24

পাবনায় এক নারীকে মারধরের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়ার পরেও তা মামলা হিসেবে গ্রহণ না নিয়ে জিডি হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রহস্যজনক কারণে থানায় মামলা নেওয়া সম্ভব না জানিয়ে পুলিশ ভুক্তভোগি নারীকে আদালতে নারী নির্যাতন আইনে মামলা করার পরামর্শ দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট এজাহার সুত্রে জানা গেছে, পাবনা শহরের লস্করপুর বাইপাস রোডের হামিদা ক্লিনিকের পাশের আলতাফ হোসেনের মেয়ে অন্তরা আক্তার অঞ্জনার (২৮) এর সঙ্গে গত শনিবার (৪ জুন) একই এলাকার শফিউর রহমানের ছেলে রফিক (৩৫) এবং তার স্ত্রী শিলা খাতুনের (৩২) মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনার পর পরই রফিক ও শিলা লাঠিসোঠা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে অন্তরা আক্তার অঞ্জনার বাড়ীতে হামলা করে ব্যাপক ভাংচুর ও তাকে বেদম মারপিট করে। এক পর্যায়ে বিবস্ত্র করে ফেলে। এ ঘটনায় সে গুরুতর আহত হয়। পরে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তিনি এখন নিজ বাড়ীতে অবস্থান করছেন। গত ৫ জুন পাবনা থানায় এজাহার দেওয়া হলেও কয়েকদিন ঘুরিয়ে সেটিকে জিডি আকারে গ্রহণ করা হয়।

ভুক্তভোগি আলতাফ হোসেনের মেয়ে অন্তরা আক্তার অঞ্জনা (২৮) সাংবাদিকদের বলেন, গত ৫ জুন থানায় অভিযোগ দেওয়া হলেও পুলিশ মামলা না নিয়ে একটি জিডি টাইপ করে আমার স্বাক্ষর নেয় (জিডি নং ৫৬৪ তারিখ ০৮-০৬-২০২২) এবং একটি নম্বরসহ আমাকে দেয় এবং সেটি নিয়ে আদালতে নারী নির্যাতন আইনে মামলা করার পরামর্শ দেয়।

এ ব্যাপারে পাবনা সদর থানার ডিউটি অফিসার লাইলি খাতুন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বাদীর ইচ্ছা অনুযায়ী এ ঘটনায় পাবনা সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!