শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
শ্রদ্ধা ভালোবাসায় সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের শেষকৃত্য সম্পন্ন পাবনায় শারদীয় দুর্গোৎসব উপেলক্ষ্যে মর্জিনা লতিফ ট্রাস্টের বস্ত্র বিতরণ একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক রণেশ মৈত্রের শেষকৃত্য সম্পন্ন পাবনায় ভাইয়ের দায়ের কোপে প্রাণ গেল ইসলামী আন্দোলনের নেতার ঈশ্বরদীতে গৃহবধূকে ছুরিকাঘাতে হত্যা রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে আবারও ডেঙ্গু আক্রান্ত শ্রমিকের মৃত্যু ফরিদপুরে মন্দিরের জায়গা দখল করে মেয়রের কোটি টাকার বাণিজ্য মেলা! উৎসবমুখর পরিবেশে পাবিপ্রবিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উদযাপন প্রতারণার অভিযোগ, সুজানগরে আ. লীগের নেতা উজ্জ্বলকে অবরুদ্ধ করে টাকা ফেরতের দাবী ও আলোর পথযাত্রী, এখানে থেমো না!

চৌর্যবৃত্তির অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যাক্তির মানহানি মামলায় জামিন নিলেন পাবিপ্রবির সাবেক ভিসি

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
Pabnamail24

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. এম রোস্তম আলীর বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানি মামলায় তিনি জামিন পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার সশরীরে পাবনা জজকোর্টে উপস্থিত হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত দুই হাজার টাকা বন্ডে তার জামিন মঞ্জুর করে মামলা বিচারিক আদালতে পাঠান। তাঁর বিরুদ্ধে মামলাটি করেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকর্ম বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রক্টর ড. মো. আওয়াল কবির জয়। গবেষণা কর্মে চৌর্যবৃত্তির অভিযোগে তৎকালীন সময়ে বাদীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও গ্রহন করেন সাবেক ভিসি। তবে বর্তমান ভিসি এসে বিষয়টির প্রতি শিথীলতা আনেন।

গত ২৪ মার্চ পাবনার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালত-১ এ তিনি মামলাটি দায়ের করেন। মামলাটি আমলে নিয়ে আদালতের বিচারক মো. সাইফুল ইসলাম প্রফেসর ড. এম রোস্তম আলীর বিরুদ্ধে সমন জারি করেছিলেন। একই আদালত বৃহস্পতিবার জামিন মঞ্জুর করেন। রোস্তম আলীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন পাবিপ্রবির প্রফেসর সাইফুল ইসলাম, প্রফেসর হাসিবুর রহমান সিকিউরিটি অফিসার হাসিবুর রহমান প্রমুখ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবদুল আজিজ ও অ্যাডভোকেট চৌধুরী সুলতানা রাজিয়া টুলটুলি। তারা জানান, বাদী আওয়াল কবির জয় স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে দন্ডবিধির ৫০০ ধারায় মামলাটি দায়ের করেছিলেন। মামলার বাদী ন্যায়বিচার পাবেন বলেও তারা আশাবাদী। বিবাদী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শরিফুল ইসলাম।

বাদীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত অধ্যাপক ড. এম রোস্তম আলী পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য থাকাকালে ২০১৯ সালের ২৩ ডিসেম্বরে ক্ষমতার অপব্যবহার করে আওয়াল কবির জয়কে রেজিস্ট্রার কর্তৃক চিঠি দিয়ে আমন্ত্রণ জানানোর পরও রিজেন্ট বোর্ডের সভায় প্রবেশ করতে দেননি। কোনো কারণ দর্শানোর নোটিশ ছাড়াই তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো প্রশাসনিক দায়িত্ব দেওয়া হবে না মর্মে সিদ্ধান্ত নেন। শুধু তাই নয়, ক্ষমতার অপব্যবহার করে তদন্ত কমিটির নামে নানাভাবে হয়রানি করেন এবং দীর্ঘ সময় তাঁর রিপোর্ট প্রদান না করে উপাচার্য মেয়াদ শেষের আগে গোপনে ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন। এতে আওয়াল কবির জয়ের সামাজিক, ব্যক্তিগত ও প্রশাসনিক সম্মানহানি হয়েছে এবং তিনি সীমাহীন ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। এমন মানহানি ঘটানোয় অধ্যাপক এম রোস্তম আলী ভুক্তভোগী আওয়াল কবির জয়ের ৫০ কোটি টাকার ক্ষতি করে দন্ডবিধির ৫০০ ধারায় গুরুতর অপরাধ করেছেন।
মামলার বাদী আওয়াল কবির জয় বলেন, অধ্যাপক এম রোস্তম আলী ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভুয়া সব অভিযোগ তুলে আমাকে রিজেন্ট বোর্ডের সভায় ঢুকতে দেননি এবং কোনো কারণ দর্শানো ব্যতীত প্রশাসনিক দায়িত্ব থেকে বিরত রেখে আমার ব্যক্তিগত ও সামাজিকভাবে ক্ষতি করেছেন। আশা করি আমি আদালতে ন্যায়বিচার পাব।
এ বিষয়ে প্রফেসর ড. এম রোস্তম আলী বলেন, বিচারাধীন বিষয় নিয়ে আমি কোনো মন্তব্য করবো না।

গত ৬ মার্চ পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে অধ্যাপক ড. এম রোস্তম আলীর মেয়াদ শেষ হয়েছে। ২০১৮ সালের ৭ মার্চ তিনি পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান। তাঁর বিরুদ্ধে নিয়োগ অনিয়ম, বাড়ি ভাড়া ফাঁকি দেওয়া, ক্ষমতার অপব্যবহার, উন্নয়ন প্রকল্পে হরিলুঠসহ নানা অভিযোগ ওঠে। ইউজিসির তদন্তে প্রমাণিতও হয় অনেক অভিযোগ।
প্রসঙ্গত, বাদী আওয়াল কবিরের গবেষনাকর্মে প্লাগারিজম (চৌর্যবৃত্তি) এর অভিযোগে ভিসি রোস্তম আলী অভিযোগ পেয়ে তদন্ত করেন। তদন্তে তার গবেষনাকর্মে প্লাগারিজম এর সত্যতা পান। তৎকালীন সময়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও গ্রহন করেন সাবেক ভিসি। তবে বর্তমান ভিসি এসে বিষয়টির প্রতি শিথীলতা আনেন।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!