মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৫:১০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

ঈশ্বরদী ছাত্রলীগে এক পক্ষের মিষ্টি খেয়ে আনন্দ উল্লাস, পদবঞ্চিতদের রাস্তায় আগুন

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনামেইল টোয়েন্টিফোর ডটকম
  • প্রকাশিত রবিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২২
Pabnamail24

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম প্রেসরিলিজ নির্ভর ঈশ্বরদী উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের কমিটি বাতিলসহ কাউন্সিলের মাধ্যমে কমিটি পূর্ণগঠনের দাবীতে ধারাবাহিক ভাবে পদ বঞ্চিতরা রাস্তায় আগুন জ¦ালিয়ে বিক্ষোভ সহ বিভিন্ন আন্দোলন করছেন। অপরদিকে পদ প্রাপ্তরা মিষ্টি বিতরণ, দোয়া ও ইফতার মাহফিল আয়োজনের মাধ্যমে উল্লাস করছেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার বিকেলে ঈশ্বরদী উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ উল্লেখ করে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফিরোজ আলী ও সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে শুধুমাত্র সভাপতি ও সম্পাদকের নাম ঘোষণা করে তা ফেসবুকে পোস্ট দেন। সেখানে ঈশ্বরদী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে মল্লিক মিলন মাহমুদকে সভাপতি, খন্দকার আরমানকে সাধারণ সম্পাদক ও পৌর ছাত্রলীগের কমিটিতে আবির হোসেন শৈশবকে সভাপতি ও মারুফ হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। এরপর থেকেই পদবঞ্চিতরা কমিটি বাতিলের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন, রাস্তায় টায়ার জ¦ালিয়ে সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা চালিয়ে যাচ্ছেন। পদ বঞ্চিতদের পক্ষ থেকে প্রতিদিনই ইফতারের পর এসব কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

পৌর ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত ঘোষিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম শাওন বলেন, পাবনা জেলা ছাত্রলীগ একটি পক্ষের নিকট থেকে লাখ লাখ টাকা নিয়ে কাউন্সিল না দিয়ে ফেসবুকে পকেট কমিটির সভাপতি ও সম্পাদক পদে নাম ঘোষণা করেছেন। এই কমিটির বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগ স্থানীয় এমপি নুরুজ্জামান বিশ^াস, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান নায়েব আলী বিশ^াস, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, পৌর আওয়ামীলীগ ও মেয়র ইছাহক আলী মালিথাসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের কিছুই জানাননি।

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, পাবনা জেলা কমিটি যে পকেট কমিটিতে সভাপতি ও সম্পাদক বানিয়েছেন তাদের একজন স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকারের নাতি, আরেকজন বিএনপির ওয়ার্ড ছাত্রদলের নেতা, একজন মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসায়ী এবং অপরজন বিবাহিত ও মাদকাসক্ত। এসব বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি গঠন করতে হবে।

পদ বঞ্চিত ছাত্রলীগ কর্মী বুলবুল আহমেদ খান, জিসান হোসাইন, সাফিন অরণ্য, রিদয় হোসেন, মহিন ইসলাম আকাশ, শ্রী অনিক চৌধুরী, রাকিবুল হাসান রাব্বি জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা যেখানে দলে স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-বিএনপির অনুপ্রবেশ প্রতিরোধের জন্য কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন ও অবস্থান নিয়েছেন। সেখানে পাবনা জেলা ছাত্রলীগ কিভাবে টাকার বিনিময়ে জামায়াত, বিএনপি ও মাদকাসক্ত, মাদক ব্যবসায়ীসহ অবাঞ্চিতদের ছাত্রলীগের মতো ঐতিহ্যবাহি সংগঠনে শীর্ষপদে জায়গা দিচ্ছেন। তাই বিতর্কিতদের দিয়ে গঠিত পকেট কমিটি বাতিল করে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে থাকা কর্মীদের মধ্যে থেকে উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের কমিটি কাউন্সিলের মাধ্যমে গঠন করার দাবিতে তাদের কর্মসূচি চলমান রয়েছে।
Pabnamail24
অপর দিকে সদ্য ঘোষিত কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকদের পক্ষের কর্মীরা নিজেদের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ, ইফতার মাহফিল ও দোয়ার আয়োজনের মাধ্যমে আনন্দ উল্লাসে মেতেছেন। তাদের পক্ষের সিনিয়র নেতাদের বাড়িতে গিয়ে আর্শিবাদ গ্রহন করছেন। তবে ছাত্রলীগের দুই পক্ষ ভিন্ন ধরণের কর্মসূচি পালন করায় অনাকাংখিত ছোট ছোট কিছু ঘটনা ঘটলেও প্রাণহানির কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে শহর জুড়ে তীব্র উত্তেজনা ও অশান্ত পরিবেশ বিরাজ করছে।

ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ নায়েব আলী বিশ্বাস ও পাবনা-৪ এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান বিশ্বাস জানান, কাউন্সিল না দিয়ে গোপনে পাবনা জেলা ছাত্রলীগ ঈশ^রদী উপজেলা ও পৌরসভা কমিটিতে সভাপতি সম্পাদকের নাম ফেসবুকে ঘোষণা করেছে তাতে পদবঞ্চিতদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। যেকোন সময় দূর্ঘটনা ঘটার আশংকা দেখা দিয়েছে। এই কারণে দূর্ঘটনা এড়াতে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) মোঃ হাদিউল ইসলাম জানান, ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণাকে কে›ন্দ্র করে শহর জুড়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ও থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তাই সহিংসতা প্রতিরোধে শহর জুড়ে পুলিশী নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!